ট্রেন ধরার কমপক্ষে দেড় ঘণ্টা আগে পৌঁছাতে হবে স্টেশনে, স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে যাত্রীদের

আমাদের ভারত, ১১ মে: কেন্দ্র সরকার ঘোষণা করেছে ট্রেন পরিষেবা শুরু হবে আগামীকাল থেকে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর মঙ্গলবার বিকেলে পাঁচটা পাঁচে প্রথম ট্রেন হাওড়া থেকে নয়াদিল্লি উদ্দেশ্যে রওনা হবে। আর এই খবর পেতেই হাওড়া স্টেশনে শুরু হয়েছে তৎপরতা। রেলের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ট্রেন ধরতে হলে প্রত্যেক যাত্রীকে নির্দিষ্ট সময়ের অন্তত দেড় ঘণ্টা আগে স্টেশনে পৌঁছে যেতে হবে।

ট্রেনের যাত্রীদের জানানো হয়েছে খাবারের ব্যবস্থা থাকবে তাদের জন্য। তবে কমপক্ষে দেড় ঘণ্টা আগে স্টেশনে পৌঁছাতে হবে কারণ সেখানে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে ফিট মনে করলে তবেই সেই যাত্রীকে ট্রেনে উঠতে দেওয়া হবে।

ট্রেনে ওঠার ক্ষেত্রে প্রত্যেকের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে সব রেল যাত্রীকেই। সকলে এই নিয়ম‌ মানছে কিনা তার জন্য কড়া নজরদারি চালানো হবে।

মঙ্গলবার থেকে যাত্রীবাহি ট্রেন চলাচল শুরু হবে। এদিকে দক্ষিণ ভারতের ভেলোর থেকে যাত্রী নিয়ে ইতিমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের দিকে ট্রেন রওনা দিয়েছে। তাদের জন্য হাওড়া স্টেশনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে রেল। তৈরি করা হয়েছে হেলথ চেক-আপ ক্যাম্প।

হাওড়া স্টেশনে সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখতে আসেন রেলের আই জি অম্বিকা নাথ মিত্র ও আরপিএফ এর সিনিয়ার কমান্ডান্ট রজনীশ ত্রিপাঠী। হাওড়া স্টেশনের নতুন ও পুরনো দুই কমপ্লেক্সে হেলথ ক্যাম্প করা হচ্ছে। যেসব ট্রেন হাওড়ায় পৌঁছাবে সব ট্রেনের যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। তারপর তাদের নির্দিষ্ট জেলার গাড়িতে তুলে দেওয়া হবে। স্টেশনের বাইরের কোন গাড়ি ঢুকার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

জানা গেছে, মঙ্গলবার একসাথে ১৫ জোড়া ট্রেন চালানো শুরু হবে। এরপর আস্তে আস্তে তার সংখ্যা বাড়ানো হবে। সোমবার বিকেল থেকে অনলাইনে টিকিট বুকিং শুরু হয়েছে। কোথাও প্লাটফর্ম টিকিট এখনওষ বিক্রি হবে না। শুধু বৈধ রেল যাত্রীরাই স্টেশনের ভেতরে ঢুকতে পারবেন। কনফার্ম টিকিট ছাড়া কেউ স্টেশনে প্রবেশ করতে পারবেন না।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here