অমানবিক! দুর্ঘটনার পর পড়ে থাকা আহতদের হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে ছবি তুললেন পথচারীরা

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৮ জুন: দুর্ঘটনা ঘটে গিয়েছে অনেকক্ষণ। ছিটকে রাস্তার পাশে পড়ে রয়েছে ভাঙ্গাচোরা মোটরসাইকেল। দুই বাইক আরোহী রক্তাক্ত অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছেন রাস্তার উপরে। ৩০ মিনিট ধরে ভিড় জমে রয়েছে দুর্ঘটনাস্থলে। অধিকাংশের হাতেই এন্ড্রয়েড সেট রয়েছে। নানা রকম কায়দা করে দুর্ঘটনার পর পরিস্থিতি ক্যামেরাবন্দি করতে ব্যস্ত তাঁরা। কেউ কেউ দুর্ঘটনার গতি প্রকৃতি ও তার আগের পরিস্থিতি অনুমান করে পাশে থাকা মানুষজনদের বিবরণ দিতে ব্যস্ত। কেউ আবার দুর্ঘটনাগ্রস্ত আহতদের কঠোরভাবে সমালোচনায় মুখর। অথচ এদের কেউই আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার উদ্যোগ বা ব্যবস্থা করেনি। শেষ পর্যন্ত থানা থেকে পুলিশ গিয়ে দুর্ঘটনায় গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পুরুলিয়া সদর হাসপাতালে আহতরা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন।

রবিবার দুপুরে পুরুলিয়ার জয়পুরের ফরেস্ট মোড়ের কাছে রাঁচি রোডে এই মর্মান্তিক অমানবিক দৃশ্য প্রত্যক্ষ করলেন অনেকেই। জানা গিয়েছে, একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে টাটা ম্যাজিক ভ্যানের মুখোমুখি সজোরে ধাক্কা হয়। মোটরসাইকেলের সামনের অংশ পুরো ভেঙ্গে যায়। ছিটকে পড়ে দুই আরোহী গুরুতর আহত হন। অন্যদিকে, ম্যাজিক ভ্যানের সামনের অংশ পুরো দুমড়েমুচড়ে যায়। আহত হন গাড়ির চালক। তিন জনই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চিকিৎসকদের মতে দুর্ঘটনার পরপরই চিকিৎসা শুরু হলে বহু ক্ষেত্রে আহতরা বেঁচে যান। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় আহতদের। দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় মানুষজন আরো বেশি তৎপরতার সঙ্গে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে আহতরা উপকৃত হন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here