কালিয়াগঞ্জে গণধর্ষণের ঘটনায় তদন্তে পুলিশ কর্তারা

4

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ৩ জানুয়ারি: কালিয়াগঞ্জে গণধর্ষনের ঘটনা সরোজমিনে তদন্ত করতে শুক্রবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেন রায়গঞ্জ রেঞ্জের আইজি জয়ন্ত পাল। আইজি’র সাথে পরিদর্শনে ছিলেন উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার সহ জেলার পদস্থ পুলিশ আধিকারিকরা। আই জি জয়ন্ত পাল জানিয়েছেন, এই ঘটনায় দুজন দুষ্কৃতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, আরও একজনের খোঁজে তল্লাশি চলছে। ঘটনার সরোজমিনে তদন্তের জন্য আজ তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছেন। কথা বলন নির্যাতিতা মহিলা যে হোটেলে কাজ করতেন সেই হোটেলের মালিকের সাথে এবং আশপাশের মানুষজনের সাথেও।

উল্লেখ্য, বর্ষবরণের রাতে এক যুবতী হোটেল কর্মচারীকে বাড়ি ফেরার পথে দুষ্কৃতিরা রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে। সেখান থেকে নিষ্কৃতি পাওয়ার পর ওই নির্যাতিতাকে আরও একজন গাড়ির চালক গাড়িতে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

বছরের শুরুর দিনে এমন নারকীয় ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় উত্তর দিনাজপুর জেলায়। পুলিশ এই ঘটনার সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে শিবু বর্মন ও নকুল মহন্ত’কে গ্রেপ্তার করতে পারলেও অপর দুষ্কৃতি সুজন বর্মন এখনও পলাতক। ধৃত দুজনের চারদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

পুলিশের রায়গঞ্জ রেঞ্জের আইজি জয়ন্ত পাল, উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার সহ অন্যান্য পুলিশের পদস্থ আধিকারিকরা শুক্রবার সকালেই ঘটনাস্থল কালিয়াগঞ্জ থানার ধনকৈল ও হরিহরপুর এলাকা পরিদর্শনে যান। নির্যাতিতা মহিলা যে হোটেলে কাজ করতেন সেখানেও যান পুলিশ আধিকারিকরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি কথা বলেন ওই হোটেল মালিকের সাথেও। আইজি জয়ন্ত পাল বলেন, ঘটনার সরোজমিনে তদন্ত করতে আজ তারা ওই এলাকা পরিদর্শনে আসেন। এই ঘটনায় দুজন দুষ্কৃতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর দুষ্কৃতির খোঁজে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here