করোনা সংক্রমণের ভয়ে রাস্তা অবরোধ, অবরোধ তুলতে পুলিশের লাঠিচার্জ

আমাদের ভারত, আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ১২ জুলাই: করোনা সংক্রমণের ভয়ের কথা এলাকার মানুষজন প্রশাসনকে জানিয়েছেন। কিন্তু প্রশাসনের তরফ থেকে কোনও সাহায্য মেলেনি। তাই বাধ্য হয়েই এলাকায় রাস্তা আটকানোর সিদ্ধান্ত নেন তারা। আর এতেই বিপত্তি। রাস্তার উপরের ব্যারিকেড তুলতে এসে বচসায় জড়িয়ে পড়ে পুলিশ ও জনতা। পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠি চার্জ করতে হয় পুলিশকে। রবিবার দুপুরে এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। রবিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুর থানার অন্তর্গত কালিকাপুর ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঘের মোড় এলাকায়।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, গ্রামে এক যুবক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সেই আক্রান্তের পরিবারের লোকজন যত্রতত্র ঘুরে বেড়াচ্ছেন। প্রশাসনকে জানিয়েও মেলেনি কোনো সুরাহা। আর তাই প্রশাসনিক উদাসীনতার অভিযোগে রাস্তা অবরোধ করে গ্রামবাসীরা বিক্ষোভ দেখায় রবিবার। বারুইপুর চম্পাহাটি রোডের বাঘের মোড়ে বাঁশের ব্যারিকেড করে টিন দিয়ে ঘিরে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে গ্রামবাসীরা। খবর পেয়ে সোনারপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সেই অবরোধ তুলে দিতে গেলে গ্রামবাসীদের সাথে শুরু হয় বচসা। পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, কালিকাপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সাহেবপুরের সর্দার পাড়ার এক যুবক করোনা আক্রান্ত। যদিও তার পরিবারের লোকজন বাইরে বার হচ্ছেন, যত্রতত্র ঘুরে বেড়াচ্ছেন। প্রশাসনের কাছে বারবার গ্রামবাসীরা আবেদন করেছেন, কিন্তু কোনো সাড়া মেলেনি। তাই তারা বাধ্য হয়ে এদিন রাস্তা অবরোধ করেন। ঘটনায় বেশ কয়েকজন গ্রামবাসী আহত হয়েছেন। একজনকে এই, ঘটনায় আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here