তেলিনীপাড়া কান্ড! লকেট চ্যাটার্জি এবং অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করল পুলিশ

আমাদের ভারত, হুগলী, ১৬ মে: ভদ্রেশ্বরের ঘটনা নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করায় সোনারপুর থেকে এক মহিলা আইনজীবীকে আগেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এবার বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি এবং অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে উত্তেজনা ছড়ানোর অভিযোগে মামলা করল পুলিশ।

গত পরশু ভদ্রেশ্বর তেলিনীপাড়ার ঘটনা নিয়ে হুগলি জেলা শাসকের দপ্তরের সামনে ধর্নায় বসেন লকেট চ্যাটার্জি এবং অর্জুন সিং। তারপর তেলিনীপাড়ায় যাওয়ার চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু তাদের রাস্তায় আটকে দেয় পুলিশ। লকেট চ্যাটার্জি তাঁর ফেসবুকেও কিছু পোস্ট করেন। সেই পোস্ট করায় এবং জেলাশাসকের অফিসের সামনে ধর্নায় বসার জন্য লকেট চ্যাটার্জি এবং অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। দুজনের বিরুদ্ধে, ১৫৩/এ,৪৬৮, ৪৬৯, ৫০৫/(২), ৫০৬, ১২০/বি, ৪১ ধারায় মামলা রুজু করে চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ।

আজ হুগলি জেলা বিজেপি অফিসে সাংবাদিক বৈঠক করে হুগলির সাংসদ বলেন, তেলিনীপাড়ার ঘটনায় মাস্টার মাইন্ডকে ধরতে না পেরে কিছু নিরীহ মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বলেন, যাদের ধরা হয়েছে তাদের সব রকম আইনি সাহায্য দেবে বিজেপি। বারবার সিপির সঙ্গে দেখা করতে চাইলেও দেখা করেননি সিপি হুমায়ূন কবির বলে অভিযোগ করেন লকেট। তিনি বলেন, চন্দননগরের বিধায়ক এলেন আর তার সঙ্গে মিটিং করলেন কিন্তু আমি দেখা করতে চাইলাম উনি দেখা করলেন না। আর এখন পুলিশ মিথ্যা মামলা দিচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here