পুরুলিয়ায় পুলিশের ‘হাসির দোকান’, উপকৃত হচ্ছেন দুস্থরা 

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া, ২৩ জানুয়ারি: ‘হাসির দোকান’ খুলে দুস্থদের পাশে দাঁড়াল পুলিশ। জেলা পুলিশের উদ্যোগে বরাবাজার থানার ব্যবস্থাপনায় সাধারণ মানুষের থেকে সংগ্রহ করা পোশাক ধুয়ে ইস্ত্রি করে দু:স্থদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে।

প্রায় তিন মাস আগে এই ভাবনা আসে বরাবাজার আইসি’র মাথায়। মূলত স্থানীয় ওই পুলিশ ইন্সপেকটরই ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে উদ্যোগী হন। বিডিও শৌভিক ভট্টাচার্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়াতে স্থানীয় কিসান মাণ্ডিতে একটি কাউন্টার করা হয়। ‘হাসির দোকান’ নাম দেন ওই পুলিশ ইন্সপেকটর।

তার অঙ্গ হিসেবে গত মঙ্গলবার থেকে আদিবাসী এলাকা জাহানাবাদ গ্রামে খাবারের আয়োজন করা হয়। পেটপুরে দুপুরের আহার করলেন আবাল বৃদ্ধ বনিতা।পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এমনটা ধারাবাহিকভাবে চলতে থাকবে।
  

হাসির দোকান নাম কেন? পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওই কাউন্টার থেকে পরিষ্কার পরিছন্ন নিজের মনের মতো পোশাক পেয়ে এক গাল হাসি নিয়ে বাড়ি মুখো হতে পারছেন স্থানীয় দুস্থরা। আর এতেই পরিতৃপ্ত হচ্ছেন তাঁরা। তা ছাড়া পুলিশের সঙ্গে সাবলীল ভাবে ওই মানুষগুলো তাঁদের অভাব অভিযোগ জানাতে পারছেন। জনসংযোগ বাড়ছে পুলিশের। আর উপকৃতদের কথায়, অভাব অনটনের কারণে নিত্যদিনের পোশাক কেনা সম্ভব নয়।আর সেই অভাব পূরণ করছে পুলিশ। পরিষ্কার পরিছন্ন শুধু নয়, ইস্ত্রী করে আমাদের হাতে তুলে দিচ্ছে তাঁরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here