রঘুনাথপুরে আত্মঘাতী মহিলার দুই শিশু কন্যাকে আর্থিক সাহায্য পুলিশের

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৯ সেপ্টেম্বর: আত্মঘাতী মহিলার দুই শিশু কন্যাকে আর্থিক সাহায্য করল রঘুনাথপুর থানার পুলিশ। মঙ্গলবার, দুপুরে রঘুনাথপুরে মৃতার মা কল্যাণী বাউরির হাতে মা হারা দুই শিশু কন্যার নামে আলাদা আলাদা ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট খুলে তাতে পঞ্চাশ হাজার টাকা করে মোট এক লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য করল রঘুনাথপুর থানার পুলিশ। এদিন রঘুনাথপুর থানার আইসি’র অফিসে মৃতের মা কল্যাণী বাউরির হাতে ওই ব্যাঙ্কের পাস বই দুটি তুলে দেন রঘুনাথপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দুর্বার বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন এলাকার বিধায়ক পূর্ণচন্দ্র বাউরি ও রঘুনাথপুর থানার আইসি সন্দীপ চট্টরাজ।

চলতি মাসের ২২ তারিখ রঘুনাথপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের মধ্যে শৌচাগার থেকে নিতুড়িয়া থানা এলাকার রঘুডি গ্রামের বাসিন্দা লক্ষ্মী বাউরির মৃতদেহ উদ্ধার করেছিল রঘুনাথপুর থানার পুলিশ। ওই মহিলা এক মেয়ের জন্ম দিয়েছিলেন হাসপাতালে। কিন্তু মানসিক অবসাদে ওই মহিলা আত্মঘাতী  হয়েছিলেন, এমনটাই পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। পুলিশ জানায়, অয়ন্তিকা বাউরি নামে ওই মহিলার দেড় বছরের আরও একটি মেয়ে  রয়েছে। মৃতার শ্বশুর বাড়ি ঝাড়খণ্ডের ধানবাদ জেলার নিরশা থানা এলাকায়। তাঁর স্বামী দিনমজুরের কাজ করে কোনও রকমে সংসার চালান। বাপের বাড়ি নিতুরিয়া থানা এলাকায়। দুটি পরিবারই আর্থিকভাবে স্বচ্ছল নয়। এমন পরিস্থিতি দেখে রঘুনাথপুর থানার পুলিশ এগিয়ে আসে ও দুই অসহায় শিশু কন্যা অয়ন্তিকা ও মায়া বাউরির নামে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলে অর্থ সাহায্য করল।

পুলিশের এই উদ্যোগে খুশি হয়ে মৃতের ভাই জীতেন বাউরি বলেন, “আমরা ভাবতে পারছি না পুলিশ এইভাবে এগিয়ে আসবে।

রঘুনাথপুর থানার পুলিশ তথা পুরুলিয়া জেলা পুলিশকে এই সাহায্যের জন্য ধন্যবাদ জানাই।”

পুলিশের প্রশংসা করেন বিধায়ক পূর্ণচন্দ্র বাউরি। তিনি বলেন, ” পুলিশের এটা মানবিক দিক। আমাদের অনুপ্রাণিত করছে।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here