গোপীবল্লভপুরে রথযাত্রার প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে

অমরজিৎ দে, ঝাড়গ্রাম, ২৮ জুন: করোনা মহামারীর প্রশাসনিক বিধিনিষেধের জন্য গত দু’বছর নিয়ম রক্ষার রথযাত্রা উৎসব পালনের পর এবছর ফের পূর্ণ উদ্যমে হতে চলেছে গোপীবল্লভপুরের চারশো বছরের প্রাচীন রথযাত্রা উৎসব। বলা হয় মাহেশের পর সর্ববৃহৎ রথযাত্রা হল গোপীবল্লভপুরের। এই দিন উসবের মেজাজ থাকে তুঙ্গে। আর এই উৎসবকে ঘিরে ইতিমধ্যে চলছে চরম প্রস্তুতির কাজ। কারিগর দিয়ে নতুন ভাবে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে জগন্নাথদেবের রথকে। রথযাত্রা উৎসবের আয়োজনে যেমন উৎসব কমিটি সদস্যরা ব্যস্ত তেমন দু’বছর বাদে ফের মাসির বাড়িতে পৌঁছাচ্ছে রথ এই খবরে খুশি এলাকার সাধারণ মানুষ।

উল্লেখ্য, বৈষ্ণব তীর্থ শ্রী পাট গোপীবল্লভপুর। এই রথযাত্রা প্রায় চারশো বছরের প্রাচীন। নিয়ম অনুযায়ী প্রতি বছর রথের সময় গোপীবল্লভপুরের গুপ্ত বৃন্দাবন রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দির থেকে জগন্নাথদেবের রথ প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে কাপাশিয়া গ্রামে মাসির বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছায়। প্রাচীন এই রথযাত্রা উৎসব দেখতে এবং জগন্নাথদেবের রথের দড়ি টানতে হাজারে হাজারে ভক্ত জড়ো হন উৎসব স্থলে। কিন্তু ধারাবাহিকতায় ছেদ ফেলে করোনা মহামারীর। করোনার বিধিনিষেধের জন্য তিন কিলোমিটার দূরে কাপাশিয়া গ্রামে মাসির বাড়িতে জগন্নাথদেবের রথ গত দু’বছর না গিয়ে সীমাবদ্ধ থাকে গোপীবল্লভপুর গুপ্ত বৃন্দাবনের মধ্যে।

গত দু’বছর অস্থায়ী মাসির বাড়ি তৈরি করে মাত্র ১০০ মিটারের মধ্যে রথের দড়ি টানা সীমাবদ্ধ করা হয়। কিন্তু এবছর স্বাভাবিক হয়েছে মহামারী। তাই পূর্ণ উদ্যমে প্রস্তুতি সারছে উৎসব কমিটি। উৎসবের খবর পেয়ে খুশি সাধারণ ভক্তরাও।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here