শিশুদের করোনার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি, ১-৫ শ্রেণি পর্যন্ত স্কুল খোলা যেতে পারে, বলছে আইসিএমআর

আমাদের ভারত, ২১ জুলাই: করোনা পরিস্থিতি থাকলেও ১-৫ শ্রেণি পর্যন্ত স্কুলগুলি চালু করা যেতে পারে বলে মত প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা আই সি এম আর। মঙ্গলবার এই রাষ্ট্রায়ত্ত চিকিৎসা গবেষণা সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, শিশুরা ভালোভাবে এই ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলা করতে সক্ষম। তাদের দেহে ভাইরাস প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি। তাই এই পরিস্থিতিতে প্রাথমিক স্তরের স্কুলগুলি খুলে দেওয়ার কথা ভাবা যেতেই পারে।

কিছুদিনের মধ্যেই তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কার কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু পরিসংখ্যান বলছে, দেশের ভাইরাসের সংক্রমণের হার নিম্নমুখী। মঙ্গলবার সংক্রমিতের সংখ্যা তিরিশ হাজারের ঘরে নেমে এসেছে। ১২৫ দিন পর দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা আবারও অনেকটা কমেছে। আই সি আই সি এম আরের তরফে বলা হয়েছে, সার্ভেতে দেখা গেছে দেশের ছয় বছরের ঊর্ধ্বে বয়সী ভারতবাসীর মধ্যে ৬৭.৬ শতাংশের দেহে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অ্যান্টিবডির সন্ধান পাওয়া গেছে। তবে সংক্রমণের ঝুঁকি রয়েছে প্রায় ৪০ কোটি মানুষের।

করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে বয়স্কদের পাশাপাশি শিশুরা সংক্রমণের শিকার হতে পারে বলে আগেই পূর্বাভাস দিয়েছে আইসিএমআর। ফলে এখনই স্কুল খোলা উচিত হবে কিনা তা নিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের বড় অংশ সংশয় প্রকাশ করেছিল। কিন্তু আজ ডক্টর ভার্গব বলেন, প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রদের জন্য স্কুল আগে খুলে দেওয়া উচিত কারণ তাদের ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা ক্ষমতা অনেক বেশি বড়দের তুলনায়। তবে স্কুল খোলার আগে স্কুল অথরিটিকে নিশ্চিত করতে হবে যে স্কুলের সমস্ত স্টাফ ও শিক্ষকদের যেনো টিকাকরণ হয়ে যায়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here