বাড়ি ভেঙ্গে পড়ার পর সরকারি প্রকল্প দেওয়ার প্রতিশ্রুতি পুরুলিয়ার ঝালদায়

সাথী দাস, আমাদের ভারত, পুরুলিয়া, ১৫ জুন: ভগ্নপ্রায় বাড়ির ফাঁকা দেওয়ালে সব রাজনৈতিক দলের ভোট প্রচার করা হয়েছিল। বিভিন্ন দলের প্রতীক লিখে ভোট দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছিল। ভোট পেরিয়ে গিয়েছে, নজর দেয়নি কোনো রাজনৈতিক দলই ভোট দাতার আবেদন। এমনই একটি বাড়ি বর্ষার শুরুতেই ধসে পড়ল। অল্পের জন্য বাঁচল ভোট দাতার প্রাণ।

পুরুলিয়া জেলার পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা  কমল রায়ের বাড়িটি আচমকা ভেঙ্গে পড়ে। সেই সময় কমল বাবু রান্না করছিলেন। কোনও রকমে বাইরে বেরিয়ে আসেন তিনি। হত দরিদ্র কমল বাবু ঠেলাতে জল বিক্রি করে সংসার চালান। তাঁর অভিযোগ, পৌরসভায় বার বার বলেও  বাড়ি পাননি তিনি। তিনি খাবারের দোকানে দোকানে জল বিক্রি করেন। বাড়িটি ভেঙ্গে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েন তিনি। কোথায় থাকবেন বুঝে উঠতে পারছেন না।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান ঝালদা পৌরসভার প্রশাসক কাঞ্চন পাঠক ও যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি রাজেশ রায়। কাঞ্চন বাবু  জানান, খবর পেয়ে পরিদর্শনে এসেছিলাম। কমল বাবুর সাথে কথা হল। প্রধান মন্ত্রী আবাস যোজনায় তাঁর নাম আছে। কিন্তু জানা গেল তিনি নিয়ম অনুযায়ী দশ হাজার টাকা জমা না রাখায় কোনো টাকা অ্যাকাউন্টে ঢোকেনি। আমরাই দশ হাজার টাকা দিয়ে শীঘ্রই কাজ শুরু করে দেব। আপাতত এলাকার কমিউনিটি হলে তাঁদের থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি রাজেশ রায় জানান, আমফানের সময় বাড়িটি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সেই মতো কমল বাবুর নামও জমা পড়েছে মহকুমা শাসকের কাছে শীঘ্রই মিলবে সাহায্য।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here