বঙ্গীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে ছাত্র ছাত্রীদের পাঠ্যপুস্তক ও খাদ্য সামগ্রী প্রদান

আমাদের ভারত, পূর্ব মেদিনীপুর, ১২ জুন :
করোনা এবং আমফান ঘুর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ৭০টি ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকদের হাতে পাঠ্যবই এবং খাদ্য সামগ্রী তুলে দিল বঙ্গীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সদস্যরা।

বঙ্গীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কমিটির পরিকল্পনায় মহিষাদল পূর্ব চক্র কমিটির উদ্যোগে এই কর্মসূচি হয় মহিষাদলের লক্ষ্যা বকুলতলা মার্কেট কমপ্লেক্সে। উপস্থিত ছিলেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক আনন্দ হাণ্ডা। এছাড়া সমিতির জেলা সহ সভাপতি এবং মহিষাদল পূর্ব চক্রের সভাপতি অসীমা দাস, সম্পাদক সুদীপ্ত সাহু, জেলা কমিটির সদস্য গণেশ হুতাইত সহ চক্র কমিটির অন্যান্য সদস্য সদস্যাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাধারণ সম্পাদক আনন্দ হাণ্ডা জানান, মিড ডে মিলে পুষ্টিকর খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার পরিবর্তে সরকার চালের সঙ্গে আলু দিচ্ছে। ছাত্র ছাত্রী পিছু মাসে বরাদ্দ একমাসে ৯৯.৪০ টাকা। ২ কেজি আলু বাবদ ৪০ টাকা ব্যয় হচ্ছে। বাকি টাকায় ডাল,সোয়াবিন, ডিম দেওয়ার দাবি করছে শিক্ষক সমিতি।

এছাড়াও তিনি জানান, পড়াশোনার জন্য দায়সারাভাবে নয় যথাযথ মানের মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ছাত্র ছাত্রীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া জরুরি। কেন্দ্রীয় সরকারের প্রথাগত শিক্ষার বিকল্প হিসাবে অনলাইন শিক্ষা চালুর প্রতিবাদ করছে সমিতি। সমিতির পক্ষ থেকে করোনা এবং আমফান ঘুর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য শিক্ষক শিক্ষিকাদের আবেদন জানান অসীমা দাস। সেইসঙ্গে শিক্ষা আন্দোলনকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান তিনি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here