রামপুরহাটে কোয়ারেন্টাইনে থাকা আন্তঃজেলাবাসীদের ক্ষোভ 

আমাদের ভারত, রামপুরহাট, ১৪ এপ্রিল: ১৪ দিন পরও বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা না করায় সরকারি খাবার বয়কট করলেন ৫৫ জন শ্রমিক। সোমবার সকাল থেকে সরকারি কোনও খাবার মুখে তুলছেন না তাঁরা।
সপ্তাহ দুয়েক আগে নলহাটি থানার নাকপুর চেকপোষ্টের কাছে ওই শ্রমিকদের আটকায় রামপুরহাট মহকুমা শাসক এবং মহকুমা পুলিশ আধিকারিক। তাদের রাখা হয় লোহাপুর নিচু বাজার এলাকায় জেলা পরিষদের ঘরে। তাদের বাড়ি মুর্শিদাবাদ ও মালদা জেলায়। সোমবার তাদের বাড়ি ফেরার জন্য বাসে চাপিয়ে ফের নামিয়ে দেওয়া হয়। এতেই ক্ষুব্ধ হন শ্রমিকরা। তারপর থেকেই সরকারি খাবার বয়কট করেন তাঁরা।

মালদার মোথাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা আতিকুর রহমান বলেন, “আমাদের ১৪ দিন পেরিয়ে মঙ্গলবার ১৬ দিন হল। আজ বাসে চেপে যাওয়ার পর আমাদের ফের এই কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে আসা হয়। তার প্রতিবাদে আমরা ৫৪ জন লোক সরকারি কোনও খাবার গ্রহণ করবো না বলে স্থির করেছি। আমরা দুদিন ধরে কোনও খাবার গ্রহণ করিনি।

এব্যাপারে নলাটির বিডিও হুমায়ুন চৌধুরীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, নতুন করে লকডাউন ৩ মে পর্যন্ত কার্যকরি হওয়ায় এই মুহূর্তে এক জেলা থেকে আরেক জেলায় সরকারি নির্দেশ ছাড়া কাউকে পাঠানো যাবে না।তাই উনাদের বলা হয়েছে নির্দেশ না আসা পর্যন্ত আরো কয়েকদিন অপেক্ষা করতে। অনুরোধ করা হয়েছে আপনারা সরকারি খাবার খান। যদিও উনারা সেই খাবার না খেয়ে নিজেরাই কিনে খাবার খাচ্ছেন।

এদিকে কোয়ারেন্টাইনে থাকা আন্তঃজেলাবাসীদের দাবি, তারা তাদের পরিবারের কাছে ফিরে যেতে চান, কারণ এই মুহূর্তে বাড়ির অভিভাবক বলে তাঁরাই। বাড়িতে অভিভাবক কেউ নেই। তাঁরা খুব দুশ্চিন্তায় আছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here