রাবণ দহনে বাড়তি সতর্কতা পুরুলিয়ায়         

রাবণ দহনে বাড়তি সতর্কতা পুরুলিয়ায়         

আমাদের ভারত, পুরুলিয়া, ৯ অক্টোবর: পুরুলিয়া জেলা জুড়ে নির্বিঘ্নে দুর্গাপূজা কাটল। একাদশী উপলক্ষ্যে বুধবার রাতে রাবণ পোড়ার মাঠ সংলগ্ন ব্যস্ততম জাতীয় সড়ক ও রেল লাইনের কাছে আনন্দবাজারে অনুষ্ঠিত হয় রাবণ পোড়া ও আতসবাজি প্রদর্শনী। সেখানে গত বছরের মতো বাড়তি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয় এবারও। আয়োজক ও পুলিশের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠান চলাকালীন নজরদারি করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে নিরাপদে উপস্থিত দর্শকদের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিতে সহজ করে পুলিশ ও সেচ্ছাসেবকরা। রাবণ পোড়ার ওই নির্দিষ্ট স্থানটিকে বিশেষ সুরক্ষা বলয়ে ঘিরে রাখা হয় দর্শকদের। দুর্ঘটনা এড়াতে ওই অনুষ্ঠান চলাকালীন কড়া পুলিশি প্রহরা ও আয়োজকদের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক নজরদারিও চালানো হয়।
   

প্রসঙ্গত, গত বছর পঞ্জাবের অমৃতসরের রাবণ দহনের অনুষ্ঠানে রেল দুর্ঘটনা গোটা দেশকে নাড়া দিয়েছিল। অমৃতসরের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা থেকে শিক্ষা নেয় ঝালদা। এলাকাটিকে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে রেখে দমকলের একটি ইঞ্জিন আগে থেকেই মজুত করা হয়েছিল। সমস্ত উৎসাহী দর্শনার্থীদের সুরক্ষিত জায়গায় রেখে এই এলাকার সবচেয়ে জাঁকজমক পূর্ণ রাবন দহন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ।গোটা জেলার মানুষ তো বটেই পার্শ্ববর্তী ঝাড়খন্ড রাজ্যের বহু এলাকা থেকেও বহু মানুষ ভিড় জমান ঝালদার আনন্দবাজারে এই অনুষ্ঠান দেখতে।


    
উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ দশেরা উৎসবের সূচনা করলেন সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো। আনাড়া সেন্ট্রাল দুর্গাপূজা কমিটির উদ‍্যোগে স্থানীয় রেলওয়ে ময়দানে ওই উৎসব অনুষ্ঠিত হল মঙ্গলবার রাতভর। বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে আনাড়া রেল কলোনি সহ পাশাপাশি গ্রামের মানুষ উৎসবে সামিল হন। রীতি মেনে প্রতীকী রাবণ মূর্তিতে আগুন দিয়ে উৎসবের সূচনা হয়। উল্লাসে মেতে উঠেন উপস্থিত আপামর ভক্ত ও দর্শক। উৎসব সুশৃঙ্খলভাবে সমাপ্ত করতে উপস্থিত ছিল প্রচুর পুলিশ। উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকেও অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে পরিচালনা করা হয়।  
  
 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − 7 =

amaderbharat.com

Welcome To Amaderbharat.com, Get Latest Updated News. Please click I accept.