বলিউডে এবার ‘মহারাজের’ বায়োপিক, ভূমিকায় রনবীর কাপুর

আমাদের ভারত, ১৪ জুলাই: এবার রুপোলি পর্দায় ভারতীয় ক্রিকেটের ‘মহারাজা’-র জীবনী। শচীন তেন্ডুলকার, এম.এস.ধোনি এবং আজহারউদ্দিনের পর বড় পর্দায় উঠে আসবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যের ভারতীয় ক্রিকেট টিমের অধিনায়ক হয়ে ওঠা থেকে শুরু করে বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হওয়া পর্যন্ত প্রতিটি ধাপ।

বহু জল্পনার পর অবশেষে তিনি তাঁর বায়োপিকে সম্মতি দিয়েছেন এবং নিজেই একথা জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমে।
ডিরেক্টর এবং প্রোডাকশন হাউসের নাম প্রকাশিত না হলেও, সূত্রের খবর কোনও বড় ব্যানারে এই ছবি প্রযোজিত হবে। ২০০ থেকে ৩০০ কোটি টাকা বাজেটের হিন্দি ভাষার বানিজ্যিক ছবি হবে বলে জানা গেছে। আপাতত স্ক্রিপ্ট লেখার কাজ চলছে, ছবি নির্মানের সব বিষয় চূড়ান্ত হতে এখনও বেশ কিছু দিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন ‘দাদা’ নিজেই। তিনি অভিনেতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে রণবীর কাপুরের নাম উল্লেখ করলেও আরও দুই অভিনেতাকে অফার দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

ভারতীয় ক্রিকেটে তাঁর অবদানের জন্য ২০০৪ সালে তাঁকে পদ্মশ্রী সন্মানে ভূষিত করা হয়। সেই সঙ্গে আছে বিভিন্ন রেকর্ড এবং পুরষ্কার। তিনি একমাত্র খেলোয়াড় যিনি পর পর চারটি আন্তর্জাতিক একদিনের ম্যাচে সেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার পান। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফির সর্বোচ্চ স্কোর করা একমাত্র ব্যাটসম্যান তিনি। ওডিআই-এ নয় হাজার রান করা দ্বিতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান তিনি। এছাড়াও অজস্র রেকর্ড রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।
ভারতীয় ক্রিকেটের প্রাক্তন এই অধিনায়কের অমলিন ক্রিকেট কেরিয়ার প্রযোজকদের উদ্বুদ্ধ করেছে বরাবর। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সৌরভের ডেবিউ, জাতীয় টিমের অধিনায়ক, বিখ্যাত লর্ডসের ব্যালকনিতে জার্সি ওড়ানো এবং বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হওয়া সব মিলিয়ে একটি ছবি নির্মানের প্রয়াস অনেক দিন ধরেই চলছে। এর আগে ২০১২ সালে ‘দাদা’ জীবনী নিয়ে ‘দ্য ওয়ারিওর প্রিন্স’ নামে একটি ডক্যুমেন্টারি ফিল্ম নির্মান করেছিলেন মিতালি ঘোষ। এছাড়া ২০১৮ সালে প্রকাশিত হয়েছিল গৌতম ভট্টাচার্যের ‘এ সেঞ্চুরি ইস নট এনাফ’ নামে একটি বায়োগ্রাফি।

একাধিকবার সৌরভের বায়োপিক নিয়ে খবর শোনা গিয়েছিল। কয়েকটি প্রযোজনা সংস্থা বায়োপিকের প্রস্তাব দিয়েছিল তাঁকে। এক সময় শোনা যায়, বায়োপিক হলে হৃত্তিক রোশনকে দেওয়া হবে ‘দাদার’ চরিত্র। আবার, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নিজেই অভিনয়ের অফার পেয়েছিলেন। কিন্ত পূর্বে কোনটিতেই তিনি সম্মত হননি। তবে এবার তিনি নিজেই বায়োপিকে সম্মতি দিয়েছেন।

বিশ্ব ক্রিকেটারদের মধ্যে একজন জনপ্রিয় ক্রিকেটার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি যেমন খেলা নিয়ে সংবাদ শিরনামে থাকেন তেমনই রাজনৈতিক দলে যুক্ত না থাকলেও রাজনৈতিক প্রেক্ষিতেও সংবাদে থাকেন প্রায়শই। তবে সৌরভ রাজনীতি কে ‘না’ বলে এসেছে বরাবর। সাম্প্রতি, বাংলার ২০২১ এর বিধানচভা নির্বাচনের আগে গুজব ওঠে সৌরভ বিজেপি প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে লড়বেন। কিন্তু তা হয়নি।

আবার কিছু দিন আগে, সৌরভ গাঙ্গুলী অসুস্থ হলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির তাঁর সঙ্গে হাসপাতালে দেখা করতে যাওয়া এবং ৮ জুলাই ‘দাদা’র জন্মদিনে তাঁর বাড়ি গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর শুভেচ্ছা জানানোকে নিয়ে শুরু হয়েছে কানাঘুসো। এছাড়া সিপিআই(এম)এর অশোক ভট্টেচার্যের সঙ্গেও সৌরভ গাঙ্গুলির দীর্ঘ দিনের ঘনিষ্ট সম্পর্ক আছেই। কাজেই অনুমানের ভিত্তিতে সৌরভ গাঙ্গুলির রাজনৈতিক অবস্থান নির্ধারণ করার কোনও অবকাশ নেই। তবুও এ বিষয়টা স্পষ্ট যে, তাঁর জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগাতে চায় সকলেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here