মে মাসের মধ্যেই প্রতিদিন ১ লাখ র‍্যাপিড টেস্ট কিট বানাতে পারবে ভারত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আমাদের ভারত, ২৮ মে : দেশজুড়ে ক্রমেই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে চাই অনেক বেশি দ্রুত টেস্ট। আর টেস্ট রিপোর্টে পজিটিভ রোগীকে চিহ্নিত করে তাকে আইসোলেট করা খুব জরুরি। কিন্তু টেস্ট কিটের অভাব দেশে। তবে এবার র‍্যাপিড টেস্ট কিট উৎপাদন হবে দেশেই। হ্যাঁ এমনি আশার কথা শোনা গেল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধনের গলায়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, “মে মাসের মধ্যে র‍্যাপিড টেস্ট কিট আর টি-পিসিআর উৎপাদন করতে শুরু করব আমরা। ওই সব সরঞ্জামের উৎপাদন শুরু হবে আইসিএমআরের সবুজ সংকেত মিললেই। ৩১ মে-র মধ্যে আমরা দিনে ১ লাখ র‍্যাপিড টেস্ট কিট তৈরি করতে পারব।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের ৮০ জেলায় গত সাত দিনে নতুন করে কোন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মেলেনি। শেষ ১৪ দিনে দেশের ৪৭ জেলা থেকে কোনো পজিটিভ রোগীর খবর নেই। দেশের ৩৯ জেলা থেকে গত ২১ দিনে কোনো পজিটিভ রোগীর খবর নেই।

দেশে করনা সংক্রমণের গতি কমছে বলেই দাবি করেছেন তিনি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত ১৪ দিনে দেশে ডাবলিং রেট ছিল ৮.৬০। গত সাত দিনে তা বেড়ে হয়েছে ১০.২। গত তিন দিনে তা বেড়ে হয়েছে ১০.৯।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চীন থেকে আমদানি করা কয়েক লাখ টেস্ট কিট বাতিল করে দিয়েছে ভারত সরকার। ওইসব কিট ত্রুটিপূর্ণ বলে জানিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান সহ একাধিক রাজ্য। শেষে তা বাতিল করে দেয় আইসিএমআর।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here