হোয়াটসঅ্যাপে অশালীন মেসেজের অভিযোগ নিয়ে ফের শোভনের বিরুদ্ধে থানায় রত্না, পাল্টা অভিযোগ কাননেরও

সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা, ১৬ নভেম্বর: নিজের স্ত্রীকে ছেড়ে এখন সমস্ত জায়গায় বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘুরে বেড়ান তিনি। তারপরেও ভাইফোঁটার দিন মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে গিয়ে হোয়াটসঅ্যাপে অশালীন মেসেজ পাঠিয়ে বিরক্ত করেছেন তার প্রাক্তন স্ত্রী রত্নাকে। এই অভিযোগ নিয়ে এবার প্রাক্তন স্বামী শোভনের বিরুদ্ধে পর্ণশ্রী থানার দ্বারস্থ হলেন রত্না। পালটা রত্নাই তাকে নম্বর ব্লক থাকা সত্ত্বেও বিরক্ত করছেন, এমন অভিযোগ তুললেন শোভনও।

শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ভাইফোঁটা নেওয়ার খবরে রত্না বলেছিলেন শুভবুদ্ধির উদয় হচ্ছে। সুত্রের খবর, সেই রত্নাই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে হোয়াটসঅ্যাপে অশালীন ম্যাসেজ পাঠানোর অভিযোগ দায়ের করেছেন। যদিও শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ম্যাসেজ পাঠানোর কোনও প্রশ্নই ওঠে না। কেননা রত্নার ফোন নম্বর তিনি ব্লক করে দিয়েছেন।

রত্নার পরিচয় এখন আর শুধু শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী নয়, তিনি ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল নেত্রীও বটে। অভিযোগ, ভাইফোঁটার দিন, তাঁর ফোনে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ফোন থেকে ম্যাসেজ পাঠানো হয়েছে। সেই ম্যাসেজে অশালীন শব্দ প্রয়োগ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন রত্না। পাল্টা অভিযোগ করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়ও। তাঁর অভিযোগ, রত্নাই তাঁকে বিরক্ত করেন। তাঁর আরও অভিযোগ নম্বর ব্লক থাকা সত্ত্বেও প্রযুক্তির ব্যবহার করে দুর্গাপুজোর অষ্টমীতে তাঁকে রত্না চট্টোপাধ্যায়ের ফোন থেকে হোয়াটসঅ্যাপ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।

শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা শুরু হয়েছে ২০১৭-র শেষ দিকে। শোভন চট্টোপাধ্যায় বিচ্ছেদ চাইলেওস রত্না চট্টোপাধ্যায় তা না চাওয়ায় মামলা দীর্ঘায়িত হয়েছে। যার মধ্যে যুক্ত হয়েছে ভাইফোঁটার দিন রত্না চট্টোপাধ্যায়ের মোবাইলে পাঠানো ম্যাসেজ। যা এই মামলায় নতুন মোড় বলেই মনে করছেন অনেকে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here