মক টেস্টের মাধ্যমে স্বামীজিকে স্মরণ

আমাদের ভারত, বর্ধমান, ১২ জানুয়ারি: সারা দেশ জুড়ে যখন স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৭ তম জন্মদিন উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে পালন করা হচ্ছে তখন তিনি ভেবেছিলেন একটু অন্যভাবে স্বামীজিকে শ্রদ্ধা জানাতে। তিনি প্রীতম কুমার সাঁই। বর্ধমান শহরের বায়োলজির শিক্ষক।

জীবনে প্রথম বড়ো পরীক্ষা মাধ্যমিকে বসার আগে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে একটা অজানা আতংক গড়ে ওঠে। বিশেষ করে যেসব ছাত্রছাত্রী গরিব পরিবার থেকে মাধ্যমিকে বসতে চলেছে তারা সঠিক দিশা খুঁজে পায়না। তাদের কথা ভেবেই ৪৪১ জন ছাত্রছাত্রীর মক টেস্টের আয়োজন করেন প্রীতম বাবু। আজ রবিবার স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল বয়েজ হাইস্কুলে এই মক টেস্ট নেওয়া হয়। যার জন্য কোন ছাত্রছাত্রীকেই কোন প্রবেশমূল্য দিতে হয়নি।

বায়োলজির শিক্ষক প্রীতম কুমার সাঁই বলেন,
স্বামীজীর ১৫৭ তম জন্মদিন বিভিন্ন জন বিভিন্ন রকম ভাবে পালন করে। আমি একটু রকম ভাবে মক টেস্টের মাধ্যমে পালন করছি। বিভিন্ন গরীব ছাত্র ছাত্রী তথা কথিত বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে মোটা টাকার বিনিময়ে পরীক্ষা দিতে পারে না তাদের কথা মাথায় রেখে কোন প্রবেশ মূল্য ছাড়াই এই মক টেস্টের আয়োজন করা হয়েছিল। ৪৪১ জন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী এই মক টেস্টে অংশগ্রহণ করে। ঠিক যেভাবে মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হয় ঠিক সেইভাবেই এদিন পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। এই পরীক্ষা ছাত্রছাত্রীদের মানসিক এবং বিষয়গত প্রস্তুতিতে খুবই কার্যকরি হবে। প্রতি ছাত্র ছাত্রীকে বিনামূল্যে ফাইল, স্বামীজীর বাণী ও চিন্তা বই এবং বায়োলজিতে বেশি নম্বর পাওয়ার ও পরীক্ষার প্রস্তুতি বিষয়ক নির্দেশিকা পত্র দেওয়া হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here