অর্পিতাকে সরিয়ে দুর্নীতি ইস্যুতে স্পষ্ট বার্তা দক্ষিণ দিনাজপুরে, দলের সর্ব্বোচ্চ পদে শঙ্করকে বসিয়ে গৌতমকে সভাপতির দায়িত্ব তৃণমূলের

পিন্টু কুন্ডু, আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ২৩ জুলাই: জেলার রাশ শঙ্কর চক্রবর্তীর হাতে রেখে অর্পিতা ঘোষকে সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে, আনা হল গঙ্গারামপুরের বিধায়ক গৌতম দাসকে। বৃহস্পতিবার কলকাতায় দলীয় বৈঠকের পর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন সভাপতি হিসেবে গৌতম দাসের নাম ঘোষণা করেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন একইসাথে জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে দলের বর্ষিয়ান তৃণমূল নেতা শঙ্কর চক্রবর্তীকে। চেয়ারম্যানের নির্দেশেই সভাপতি জেলায় সাংগঠন পরিচালনা করবে বলেও স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছে দলের তরফে, বলে সুত্রের খবর।

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট কেন্দ্রে হারের পরেও জেলা সভাপতি হিসাবে অর্পিতাকে দায়িত্ব দেওয়ায় তাকে নিয়ে দলের অন্দরে দীর্ঘদিন ধরে চাপা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছিল। জেলাজুড়ে একাধিক কর্মী সমর্থক প্রকাশ্যে মুখ খুলতে না পারলেও আড়ালে সভাপতির কাজকর্মে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। মুখ খুললে একপ্রকার প্রকাশ্যে কর্মীদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ। কর্মী-সমর্থকদের ক্ষোভের তালিকায় ছিলেন প্রাক্তন ২ কার্যকরী সভাপতিও। যার পরে দলের সুপ্রিমোর নির্দেশে সম্প্রতি ২ কার্যকরী সভাপতিকে সরিয়ে জেলায় একমাত্র কার্যকরী সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল গঙ্গারামপুরের বিধায়ক গৌতম দাসকে।

এবার জেলার সংগঠন আরোও মজবুত করতে মূল ভূমিকায় রয়েছেন বরিষ্ঠ নেতা শংকর চক্রবর্তী। নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে দলের কাজকর্মের প্রধান ভূমিকায় থাকবেন তিনি। তবে সভাপতি হিসাবে জেলায় কাজ করবেন গঙ্গারামপুরের বিধায়ক গৌতম দাস।

চেয়ারম্যান শঙ্কর চক্রবর্তী জানিয়েছেন, দল দায়িত্ব দিয়েছে। নিষ্ঠার সাথে জেলায় সকলকে নিয়েই কাজ করবেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here