ছিটমহল বিনিময়ের পাঁচ বছর পর স্থায়ী ঠিকানায় মেখলিঞ্জের অস্থায়ী শিবিরের বাসিন্দারা

আমাদের ভারত, নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার, ১৪ আগস্ট: ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিয়ের পাঁচ বছর পর তাদের জন্য তৈরি স্থায়ী ফ্ল্যাটে গেলেন অস্থায়ী ক্যাম্পে বসবাস কারি ৪৬টি পরিবার। ছিটমহল বিনিময়ের পর বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা ভারতীয় ছিটমহলগুলি থেকে তারা এদেশে এসেছিলেন। মেখলিগঞ্জের ভোটবাড়িতে অস্থায়ী শিবিরে থাকা এই পরিবারগুলি প্রথমে ফ্ল্যাটে যেতে রাজি ছিলেন না, অবশেষে প্রশাসনের অশ্বাসে তাঁরা ফ্ল্যাটে গেলেন।

এদিন নতুন ফ্ল্যাটে গিয়েও পুরোনো জায়গাকে চোখের জলে বিদায় দিলেন ভোটবাড়ি অস্থায়ী শিবিরে থাকা পরিবারগুলি। নতুন শিবিরে উপস্থিত ছিলেন মেখলীগঞ্জের মহকুমা শাসক রাম কুমার তামাং। তবে প্রশাসনের অনুরোধে নতুন ফ্ল্যাটে এলেও নিজেদের অপছন্দের কথা বলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সরস্বতী রায় বা দীপেন বর্মন প্রত্যেকেই জানিয়েছেন, পুরোনো অস্থায়ী ক্যাম্প তাদের কাছে ভালো ছিল, কারন ফ্ল্যাট বাড়ি তাদের পছন্দ নয়।

উল্লেখ্য ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ১৬১টি ছিটমহল বিনিময়ের পর বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা ভারতীয় ছিটমহলগুলি থেকে ৯২০ জন বাসিন্দা এদেশে আসেন, তাদের দিনহাটা, হলদিবাড়ি ও মেখলিগঞ্জের তিনটি অস্থায়ী শিবিরে রাখা হয়েছিল।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here