জমা জলে চরম দুর্ভোগে রায়গঞ্জ পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা

স্বরূপ দত্ত, উত্তর দিনাজপুর, ৬ অক্টোবর: দিন কয়েক আগেই বৃষ্টি থেমে গেলেও নিকাশি ব্যাবস্থার অভাবে এলাকায় জল জমে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন রায়গঞ্জ পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় নোংরা পচা জল জমে থাকায় ছড়াচ্ছে দূষণ, দেখা দিচ্ছে জলবাহিত রোগ।

এলাকায় জল নিকাশি ব্যাবস্থা না থাকায় ক’দিনের টানা বৃষ্টির জল জমে রয়েছে। প্রায় দুসপ্তাহ ধরে জমা জলে আটকে রয়েছেন রায়গঞ্জ শহরের দক্ষিণ বীরনগর এলাকার কয়েকশো পরিবার। রায়গঞ্জ পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের রাজীব কলোনী, নেতাজী সুভাষ কলোনী সহ বেশকিছু এলাকায় বৃষ্টির জল জমে রয়েছে। শুধু এলাকার রাস্তাঘাটই নয় বেশকিছু মানুষের বাড়িঘরেও নোংরা পচা জল ঢুকে রয়েছে।

দুর্গন্ধ ভরা এই জল থেকে মশার জন্ম নিচ্ছে। জল থাকায় এলাকায় বাড়ছে সাপ সহ অন্যান্য পোকামাকড়ের উপদ্রব। চরম দুর্ভোগে রয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তপন দাসের উদ্যোগে এলাকায় মর্নিং গার্লস হাইস্কুল ও বীনাপাণি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুটি অস্থায়ী ত্রাণ শিবির খোলা হয়েছে। এতদিন দুর্ভোগের পর এবার জলবন্দী মানুষদের ওই ত্রাণ শিবিরে নিয়ে যাওয়ার ব্যাবস্থা করা হচ্ছে। স্থানীয় কাউন্সিলর তপন দাস জানিয়েছেন, শহরের সমস্ত জল বন্দর শ্মশান কলোনীর একটি ক্যানেল এবং দেবীনগর সেতুর নীচ দিয়ে গিয়ে কুলিক নদীতে পড়ে। কিন্তু সেখান দিয়ে জল বের হতে না পারায় এলাকার বহু মানুষ জলবন্দী হয়ে পড়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here