উদয়পুর হত্যাকাণ্ডে ধৃত রিয়াজ আইসিসের স্লিপার সেলে প্রধান, একাধিক হামলার ছক ছিল তাদের

আমাদের ভারত, ৩০ জুন:
উদয়পুরের নৃশংস হত্যার ঘটনায় ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে আইসিস জঙ্গি গোষ্ঠীর যোগ। পুলিশ সূত্রে খবর, আইসিসের স্লিপার সেলের উদয়পুর শাখার প্রধান ছিল ধৃত মহম্মদ রিয়াজ। জয়পুরে ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ষড়যন্ত্রের সাথেও যুক্ত ছিল সে বলে ধারণা তদন্তকারীদের।

রাজস্থানের উদয়পুরের এক হিন্দু দর্জির হত্যার কায়দা দেখে শিউরে উঠেছিল গোটা দেশ। হত্যার পর হত্যাকারীদের নরকীয় উল্লাস চমকে দিয়েছিল তদন্তকারীদের। এই ঘটনাকে ইতিমধ্যেই সন্ত্রাসমূলক কার্যকলাপ হিসেবে চিহ্নিত করে তদন্তভার নিয়েছে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি এনআইএ। তারই তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

একাধিক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, উদয়পুরের পুলিশ আগেই জানিয়েছিল মহম্মদ রিয়াজের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগ ছিল। ধৃত দুজনের মোবাইলে আটটি পাকিস্তানি নম্বর পাওয়া গেছে। তদন্তকারীদের দাবি, পাকিস্তানের চরম মৌলবাদী সন্ত্রাসী সংগঠন দাওয়াতে–ই– ইসলামীর মাধ্যমে আইসিসের সঙ্গে যোগাযোগ রাখত রিয়াজ। ইসলামিক জঙ্গি সংগঠনটি ভারতে জাল বিছিয়েছে। তাদের স্লিপার সেল অর্থাৎ আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনটি গোপন শাখার উদয়পুরের প্রধান ছিল রিয়াজ।

গত পাঁচ বছর ধরে সঙ্গী মহম্মদ গোষকে নিয়ে ধর্মীয় উস্কানি মূলক প্রচার চালিয়ে যাচ্ছিল সে। তাদের আরো এক সঙ্গীর হদিস মিলেছে। রাজস্থানের টঙ্ক থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে মুজিব। যার সঙ্গে সরাসরি আইসিস যোগের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

তদন্তকারীদের ভাবাচ্ছে রিয়াজের ফেসবুক প্রোফাইলের ছবিও। সেখানে আঙ্গুলের মাধ্যমে একটি বিশেষ ভঙ্গি করে রয়েছে সে, যা সাধারণত ইসলামিক স্টেট জঙ্গি সংগঠনের চিহ্ন। এছাড়াও তার নামের শেষে আটারি শব্দবন্ধ ব্যবহার করা আছে, যা আসলে পাকিস্তানের আটারের দাওয়াত– ই – ইসলামের পরিচয় বাহক। তদন্ত যতই এগোচ্ছে তাতে উদয়পুর হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আইসিস যোগ স্পষ্ট হচ্ছে। তারা জানিয়েছে শুধু উদয়পুরের কানাইয়ালাল নয়, তাদের হিটলিস্টে ছিল জয়পুরের আরো এক ব্যবসায়ী। এমনকি জয়পুরের একাধিক জায়গায় হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল তাদের।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here