ক্যানিংয়ে পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধার, খুন করে নদীতে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ

আমাদের ভারত, ক্যানিং, ১৬ সেপ্টেম্বর: দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার অন্তর্গত মাতলা নদীর বধুকুলা খেয়াঘাট লাগোয়া এলাকা থেকে এক ব্যক্তির পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। মঙ্গলবার বিকালে পিয়ালী নদীর বধুকুলা খেয়া ঘাটে দেহটি ভাসতে দেখেন স্থানীয় মানুষজন। এ বিষয়ে তাঁরা ক্যানিং থানায় খবর দিলে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

মৃত ব্যক্তির নাম মহিউদ্দিন শেখ (৪৫) বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাঁর বাড়ি ক্যানিং থানার নিকারীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের পাঙ্গাসখালি গ্রামে। মৃত ব্যক্তির পরিবারের অভিযোগ তাঁকে খুন করে ফেলে দিয়েছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। মূলত তাঁর শ্যালকরা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে দাবি তাঁদের। পুরানো বিবাদের জেরে তাঁকে বাড়িতে ডেকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পরিবারের।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, গত এক বছর আগে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে অশান্তির জন্য শ্বশুর বাড়ির সঙ্গে তাঁর বিবাদ হয়। যদিও পরে সেই বিবাদ মিটে যায়। গত ২৭ আগস্ট তাঁকে শ্বশুর বাড়িতে ডেকে পাঠানো হয়। তিনি শ্বশুর বাড়িতে যান। সেখানে থাকা অবস্থায় তিনি নিখোঁজ হয়ে যান। এরপর পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করার পর ৩রা সেপ্টেম্বর ক্যানিং থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন। গতকাল তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। দেহ উদ্ধারের পর থেকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন গা ঢাকা দিয়েছে বলে পুলিশ সূত্রের খবর। ক্যানিং থানায় শ্বশুর সহ চার শ্যালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিশ মৃত দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট এলে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে বলে দাবি পুলিশের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here