বিরোধীদের চাপ পড়েই কি পরিবর্তন! খাদ্য সচিব সহ দুই জেলা শাসককে বদলি করল নবান্ন

আমাদের ভারত, ১৭ এপ্রিল: বেশ কিছুদিন ধরেই অভিযোগ আসছিল একের পর জেলা থেকে। বিজেপি কংগ্রেস বামেরা একযোগে রাজ্যে রেশন বিলি নিয়ে ভুরি ভুরি অভিযোগ করছেন। গরিব মানুষের জন্য কেন্দ্রের বরাদ্দ বিলি না করার অভিযোগও করেছে বিজেপি।
ফলে রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা নিয়ে একাধিক অভিযোগ পাচ্ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই জন্যই সম্ভবত এবার বদলে দিলেন খাদ্য সচিব। তার সঙ্গে দুই জেলার জেলাশাসকেও বদলে দিলেন। নবান্ন থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে বৃহস্পতিবারেই।

বিরোধীরা বারবার অভিযোগ করেছেন লকডাউনের সময়ে রাজ্যের রেশন বিলি সঠিকভাবে হচ্ছেনা। ঠিক সময়ে রেশন দোকান খোলা থাকছে না। বরাদ্দ সামগ্রী পাচ্ছে না মানুষ। এমনকি কেন্দ্রীয় সরকারের বরাদ্দ রেশন বিলি না করার অভিযোগ উঠেছে। খোদ কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রাজ্যের খাদ্য সচিবের কাছে কেন্দ্রের বরাদ্দ কেন বিলি করা হয় নি তাই জানতে চেয়েছিলেন।

এবার রেশন বিলি নিয়ে নিজেই ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই রেশন বিলি নিয়ে অভিযোগের প্রসঙ্গ তুলেছেন তিনি। সূত্রের খবর খাদ্যমন্ত্রীর উপরে রেগে যান মুখ্যমন্ত্রী। খাদ্য সচিব মনোজ আগরওয়ালকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। তাকে পাঠানো হয় কম্পালসারি ওয়েটিংয়ে। তার জায়গায় নতুন খাদ্য সচিব পারভেজ আহমেদ সিদ্দিকিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

এছাড়াও বদল করা হয়েছে পশ্চিম বর্ধমান ও দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকদের। কারণ এই দুই জেলা থেকে বিস্তর অভিযোগ পাওয়া গেছে বলে খবর।

বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট মুখ্যসচিবকে জানিয়েছেন খাদ্য সচিবের কাজে মোটেই তিনি খুশি নন। এই দায়িত্ব অন্য কাউকে দেওয়া হোক। মন্ত্রিসভার বৈঠকে বেশ কিছুক্ষণ ধরে খাদ্য বন্টন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এরপরই খাদ্য সচিব ও জেলা শাসকদের বদলের নির্দেশিকা জারি হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here