সোনার বাট ও বুদ্ধমূর্তি পাচারের আগেই আটক ভাঙড়ে

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ১৭ জুলাই: সোনার বাট, বৌদ্ধমূর্তি, নগদ ২৫ হাজার টাকা ও ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির নাম খোদাই করা দুষ্প্রাপ্য ধাতু উদ্ধার করল ভাঙড় থানার পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড় থানার পদ্মপুকুর গ্রাম থেকে রেজ্জাক মোল্লার বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে এগুলি উদ্ধার করে। এই ঘটনায় একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। যদিও রেজ্জাক মোল্লা পলাতক।

বৃহস্পতিবার একটি অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার আচমকা ভাঙড় থানার পুলিশ রেজ্জাক মোল্লা নামে ঐ ব্যক্তির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এগুলি উদ্ধার করেন। পুলিশ সূত্রে খবর, পূর্ব বর্ধমান জেলার সাহাপুরের বাসিন্দা জামালউদ্দিন মোল্লা সোনা কেনার জন্য বৃহস্পতিবার ভাঙড়ে আসেন। ভাঙড়ের বাসিন্দা মোস্তাফিজুর সর্দার নামের এক ব্যক্তির যোগাযোগে অল্প টাকায় বেশি সোনা কিনতে জামালউদ্দিন পদ্মপুকুরে রাজ্জাক মোল্লার বাড়িতে পৌঁছান। সেখানে ব্যাগ ভর্তি টাকা দেখে মোস্তাফিজুরের পরিচিত রেজ্জাক মোল্লা ও আজগার মোল্লা সেই টাকা জোর করে ছিনিয়ে নেয় বলে ভাঙড় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন জামালউদ্দিন মোল্লা। তাদের কাছে চার লক্ষ টাকা ছিল বলেও এদিন জানান তিনি।

অভিযোগ পেয়ে ভাঙড় থানার পুলিশ তদন্তে নেমে রেজ্জাক মোল্লার বাড়িতে অভিযান চালায়। এবং সেখান থেকে দুষ্প্রাপ্য ধাতু ও নগদ টাকা উদ্ধার করে। ঘটনার মূল অভিযুক্ত রেজ্জাক মোল্লা পলাতক। ভাঙড় থানার পুলিশ একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। এই ঘটনার পিছনে কোনও বড় পাচার চক্র রয়েছে কিনা সেটা ও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। জামালউদ্দিন মোল্লাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here