অলিম্পিকে অংশগ্রহণকারীদের জন্য রাজ্যের স্বল্প সহায়তায় তোপ শুভেন্দু অধিকারীর

অশোক সেনগুপ্ত

আমাদের ভারত, ১৭ জুলাই: “দুর্ভাগ্যক্রমে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ‘খেলা হবে’ দিবস পালনের কথা ভাবছেন অথচ রাজ্যের অলিম্পিক পদক বিজয়ী ক্রীড়াবিদদের জন্য দেশের অন্য রাজ্যগুলির তুলনায় সবচেয়ে কম নগদ পুরস্কার বরাদ্দ করেছেন।“

শনিবার টুইটে এই অভিযোগ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। টুইটে যুক্ত একটি ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত তালিকার উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বোঝানোর চেষ্টা করেছেন এ রাজ্যের অলিম্পিক পদক বিজয়ীদের সরকারি সহায়তার আর্থিক পরিমাণ কত কম।

ওই তালিকায় প্রকাশ, ২২টি রাজ্যের মধ্যে অলিম্পিক পদক বিজয়ীদের সবচেয়ে কম টাকা দেয় পশ্চিমবঙ্গ। কেন্দ্র প্রতিটি পদকজয়ীকে দেয় ৭৫ লক্ষ টাকা। হরিয়ানা, ওডিশা ও চন্ডীগড় ৬ কোটি টাকা করে। কর্ণাটক ও গুজরাট ৫ কোটি টাকা করে। দিল্লি, রাজস্থান, সিকিম ও তামিলনাডু ৩ কোটি টাকা করে। পঞ্জাব সওয়া ২ কোটি টাকা করে। ঝাড়খন্ড ও তেলেঙ্গানা ২ কোটি টাকা করে। উত্তরাখন্ড দেড় কোটি টাকা। মনিপুর ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকা করে। মহারাষ্ট্র, কেরল ও গোয়া ১ কোটি টাকা করে। মেঘালয় ৭৫ লক্ষ টাকা করে। জম্মু ও কাশ্মীর এবং পশ্চিমবঙ্গ যথাক্রমে ৫০ লক্ষ ও ২৫ লক্ষ টাকা করে।

শুভেন্দুবাবু লিখেছেন, “১১৯ জন অংশগ্রহণকারী ভারতীয় অ্যাথলিট দল টোকিও অলিম্পিকের জন্য আজ থেকে রওনা হবেন। আমি তাঁদের প্রত‍্যেককে শুভেচ্ছা জানাই। গোটা ভারতবর্ষ তাদের জন্য গর্বিত।

পশ্চিমবঙ্গের তিন অংশগ্রহণকারী অলিম্পিয়ান তথা; – টেবিল টেনিসে সুতীর্থা মুখোপাধ্যায়, জিমন্যাস্টিকসে প্রণতি নায়েক ও তীরন্দাজিতে অতনু দাস আমাদের গর্ব।“

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here