আলোরানির বাংলাদেশি নাগরিকত্ব নিয়ে তোপ দাগলেন শুভেন্দু অধিকারী

আমাদের ভারত, ২১ মে: তৃণমূলের এক নেত্রীর নাগরিকত্বের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখে জাতীয় নির্বাচন কমিশনকে পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট। শনিবার টুইটারে নথিপত্র দাখিল করে এ কথা জানান পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

ছবি: আলোরানি সরকার।

শনিবার শুভেন্দুবাবু তিন পর্যায়ে টুইটারে লিখেছেন, “বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভার পরাজিত তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আলোরানি সরকার বিজেপির জয়ী প্রার্থী স্বপন মজুমদারের বিরুদ্ধে (প্রা লিঃ কোম্পানির মালকিনের অনুপ্রেরণায়) ইলেকশন পিটিশন দায়ের করেন। সেই মামলা খারিজ করে দেন মহামান্য কলকাতা হাইকোর্ট। কারণটা অবিশ্বাস্য ও আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি!

কারণ আলোরানি বাংলাদেশের নাগরিক। ঠিক পড়েছেন। মহামান্য বিচারপতির পর্যবেক্ষণ হলো আলোরানির নিজের দায়ের করা পিটিশনের তথ্য থেকেই এটা প্রমাণিত। মাননীয় বিচারপতি বিবেক চৌধুরী জানান, দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকলে কোনও ব্যক্তি নিজেকে ভারতীয় বলে দাবি করতে পারেন না। এটা বেআইনি।

বাংলাদেশের ভোটার লিস্ট-এ আলোরানি সরকারের নাম রয়েছে, তাই আলোরানি সরকার নিজেকে ভারতীয় নাগরিক বলে দাবি করতে পারেন না। নাগরিকত্বের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখে জাতীয় নির্বাচন কমিশনকে পদক্ষেপের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই রায়ে।“

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচন বনগাঁ দক্ষিণ কেন্দ্রের থেকে লড়াই করেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী আলোরানি সরকার। নির্বাচনে ২০০৪ ভোটে বিজেপি প্রার্থীর কাছে পরাস্ত হন তিনি। এমত অবস্থায় কলকাতা হাইকোর্টে পুনর্নির্বাচন চেয়ে আবেদন করেন আলোরানি। ওই আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন বিচারপতি বিবেক চৌধুরী। পাশাপাশি আদালত জানিয়েছে, নির্বাচন কমিশন খতিয়ে দেখুক কীভাবে আলোরানি সরকার ভারতের নির্বাচনের প্রতিনিধিত্ব করছেন। ভারতীয় নির্বাচন কমিশনের চোখ এড়িয়ে তিনি কীভাবে এটি করলেন, তাও খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here