টাকা নিয়ে ধরা পড়ে জেল খাটার ভয়ে রাজনৈতিক জন্মদাত্রীর পিঠে ছুরি মেরে বিজেপিতে গিয়েছিলেন শুভেন্দু: শান্তনু সেন

স্বরূপ দত্ত, আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ২৩ নভেম্বর: “টাকা নিয়ে ধরা পড়ে জেল খাটার ভয়ে রাজনৈতিক জন্মদাত্রী মমতা ব্যানার্জিকে পিঠে ছুরি মেরে বিজেপির পায়ের ধুলো মাথায় নিয়ে বিজেপিতে গিয়ে লোডশেডিং -এ ভোটে জিতে বিরোধী দলনেতা হয়ে বড় বড় কথা বলছেন। নিজের দলেই ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে পড়ছেন। সুকান্ত বাবু যখন বিধানসভায় গেলেন তখন তিনি বেরিয়ে গেলেন কেন?” উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের আয়োজিত জনসভায় যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে এভাবেই কটাক্ষ করলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডাঃ শান্তনু সেন।

পাশাপাশি তিনি প্রদেশ কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীকে কটাক্ষ করে বলেন, “তিনি আরএসপির হয়ে বুথ দখল করতে করতে কংগ্রেসে গিয়ে এতদিন ধরে সংসদ থেকে নিজের এলাকায় কি কাজ করেছেন? লোকে বলে তার বাড়িতে কিছু পৌঁছে না দিলে নাকি তার লোকসভা তহবিলের কোনো কাজ হয় না। তিনি একসময় হাফপ্যান্ট পরা রেলমন্ত্রী ছিলেন। তখন তিনি প্ল্যাটফর্মের ভাড়া বাড়িয়েছিলেন।”

উল্লেখ্য, আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র করে সংগঠনকে মজবুত করতে উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে জনসভা আয়োজিত হল বুধবার। এদিন স্থানীয় শিরসী এলাকার ফুটবল ময়দানে আয়োজিত এই সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডঃ শান্তনু সেন। এছাড়াও ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী গোলাম রব্বানী, জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল, বিধায়ক মিনাজুল আরফিন আজাদ সহ অন্যান্যরা।

এদিন এই সভায় বিভিন্ন দল ছেড়ে শতাধিক কর্মী সমর্থক যোগ দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসে। এদিনের সভামঞ্চ থেকে কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরোধীতায় সরব হন উপস্থিত নেতারা। পাশাপাশি পঞ্চায়েত ভোটের প্রাক্কালে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলি প্রচারের বিষয়ে বুথ ও অঞ্চল স্তরের দলীয় কর্মীদের নির্দেশ দেন উপস্থিত নেতারা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here