স্ত্রীর শর্ত মেনে মাকে খুন করে গ্রেফতার ছেলে

সুশান্ত ঘোষ, বাগদা, ৩০ এপ্রিল: মায়ের সঙ্গে স্ত্রীর দীর্ঘ দিনের ঝামেলা। তার জেরে স্ত্রী বাড়ি ছেড়ে চলে যায়। স্ত্রীকে ফিরে আসতে বললে, স্ত্রীর দাবি মাকে খুন করলে তবেই সে সংসারে ফিরবে। এরপর ছেলে মাকে কুড়ুল দিয়ে মাথায় কোপ মেরে খুন করে। বৃহস্পতিবার সকালে এই ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটে উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানার ঘাট পাতিলা পারুইপাড়া এলাকায়। অভিযুক্ত ছেলের নাম জয়গোপাল বিশ্বাস। পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোররাতে ৬১ বছরের সুমিত্রা বিশ্বাসকে কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুন করে ছেলে জয়গোপাল বিশ্বাসl খবর পেয়ে ছেলেকে গ্রেফতার করেছে বাগদা থানার পুলিশl

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, ১২ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল জয়গোপালের। এক ছেলে এক মেয়ে আছে তাদের। সাংসারিক অশান্তির কারণে স্ত্রী বাপের বাড়িতে চলে যায়l স্ত্রীর সঙ্গে সাম্প্রতি ফোনে কথোপকথন হয় জয়গোপালের। স্ত্রী জয়গোপালকে ফোনে বলে তোমার মাকে খুন কর, তবেই আমি তোমার সঙ্গে সংসার করব। মাকে মেরে ফেললে স্ত্রী তার সঙ্গে সংসার করবে সেই ভেবেই মাকে খুন করেছে জয়গোপাল।

যদিও স্থানীয় বাসিন্দা পিন্টু বিশ্বাস বলেন, স্ত্রী চলে যাওয়ার পর থেকেই জয়গোপাল মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছিলl সেই কারণেই এই বিপত্তি সে ঘটিয়েছে। বৃহস্পতিবার ধৃত জয়গোপালকে বনগাঁ মহকুমা আদালতে তোলা হয়। এই ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে বাগদা থানা পুলিশl

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here