জন্মাষ্টমীর দিন রাতে মন্দিরে ঢুকে মা রক্ষা পেলেও দুষ্কৃতীদের হাত থেকে রেহাই পেল না ছেলে

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ১৩ আগস্ট: মা পালিয়ে মন্দিরে আশ্রয় নিলেও দুষ্কৃতীদের বেধড়ক মারে আহত হল ছেলে।গুরুতর আহত অবস্থায় ছেলে শুভজিৎ বিশ্বাসকে শক্তিনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নদিয়ার শান্তিপুরের বড়বাজার ঘাট স্ট্রিটের ঘটনা।

জানা গেছে, জন্মাষ্টমীর দিন রাতে শ্যামলি বিশ্বাস তার ছেলে শুভজিৎ বিশ্বাসকে নিয়ে আনুমানিক রাত একটার সময় বাড়ি ফিরছিলেন। অভিযোগ, সেই সময়ে কয়েকজন দুষ্কৃতী তাদের রাস্তা আটকে দাঁড়ায়, এবং তাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এরপর তারা প্রতিবাদ করতেই ওই দুষ্কৃতীরা শুভজিতের উপর চড়াও হয়। অভিযোগ, শুভজিতকে রাম দা দিয়ে হাতে পায়ে মাথায় এলোপাথাড়ি কোপায়। মা শ্যামলী বিশ্বাস কোনও রকমে প্রাণে বাঁচতে মন্দিরে আশ্রয় নেয় এবং চিৎকার করে লোকজন জড়ো করে। অভিযোগ, লোকজন বেরিয়ে আসলে দুষ্কৃতীরা শুভজিতকে খুন করার উদ্দেশ্যে গুলি করে ওখান থেকে পালিয়ে যায়। এরপর ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় শান্তিপুর থানার পুলিশ। শুভজিৎ বিশ্বাসকে ভর্তি করা হয় শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তার মাথায় পঁচিশটা সেলাই করে এবং অবস্থার অবনতি হলে তাকে কৃষ্ণনগরের শক্তিনগর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। শুভজিৎ এবং তার পরিবার প্রশাসনের কাছে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here