বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ছেলের

আমাদের ভারত, হাওড়া, ২৯ জুলাই: ভিজে জামাকাপড় শুকানোর জন্য ছাদে টাঙানো লোহার তার সরাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হল বাবা। আর বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে একইভাবে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল ছেলের। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে শ্যামপুর থানার বকুলতলায়। মৃত যুবকের নাম ইলাবন্ত মান্না (২০)। ইলাবন্ত শ্যামপুর সিদ্ধেশ্বরী মহাবিদ্যালয়ের স্নাতক স্তরের ছাত্র। ঘটনায় মৃত যুবকের বাবা উত্তম মান্না আশঙ্কাজনক অবস্থায় উলুবেড়িয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জানাগেছে, বুধবার সকালে উত্তম মান্না বাড়িতে নির্মাণ কাজের জন্য ছাদে উঠে ছাদে বাঁশ দিয়ে টাঙানো লোহার তার খুলতে যায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, তার খোলার সময় আচমকা লোহার তার বাড়ির পাশে থাকা হাইভোল্টেজ বিদ্যুতের তারে ঠেকে গেলে উত্তম মান্না বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় এবং চিৎকার করে ছাদে ছিটকে পড়ে। বাবার চিৎকারে ইলাবন্ত বাবাকে বাঁচাতে ছাদে উঠলে সেও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা দুজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় কমলপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ইলাবন্ত মান্নাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

অন্যদিকে উত্তম মান্নার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উলুবেড়িয়া স্থানান্তরিত করা হয়। শ্যামপুর থানার পুলিশ মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানোর পাশাপাশি একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here