মা’কে কটুক্তির প্রতিবাদ করায় ছুরিকাহত ছেলে, উত্তেজনা বালুরঘাটের মহন্ত পাড়ায়

পিন্টু কুন্ডু, বালুরঘাট, ২৬ জুন: মা’কে কটুক্তি করার প্রতিবাদে ছুরিকাহত ছেলে। ঘটনায় আক্রান্ত হয়েছেন মা নিজেও। শনিবার রাতে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি বালুরঘাট শহরের এক নম্বর ওয়ার্ডের মহন্ত পাড়া এলাকায়। প্রতিবেশী এক ব্যক্তির বিরুদ্ধেই উঠেছে এমন অভিযোগ। ছুরির আঘাতে গুরুতর জখম হয়েছেন স্বপ্না সরকার মহন্ত ও শীর্ষেন্দু মহন্ত নামে দুই মা ও ছেলে। ঘটনার পরেই মূল অভিযুক্ত গৌরাঙ্গ মহন্তকে গ্রেপ্তার করেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ।

জানা যায়, ওইদিন রাতেই ছুরিকাহত হয়ে বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন মা ও ছেলে। রবিবার দুপুরে বালুরঘাট হাসপাতাল থেকে তাদের ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে গতকাল রাতেই বালুরঘাট থানায় গৌরাঙ্গ মহন্ত সহ মোট তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তের পরিবার। যে অভিযোগ পেতেই রবিবার ভোরে গৌরাঙ্গ মন্ডলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিন তাকে বালুরঘাট জেলা আদালতে পাঠিয়ে পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতে নিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ঘটনায় অভিযুক্ত আরো দু’জন বিশ্বচন্ডী মহন্ত ও রকি মহন্ত পলাতক রয়েছে। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বালুরঘাট থানার আইসি শান্তিনাথ পাঁজা। রবিবার এমন বিষয় জানাজানি হতেই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। এখনো আতঙ্কের পরিবেশ রয়েছে মহন্ত পাড়ায়।

এদিকে বাকি অভিযুক্ত দু’জনের খোঁজে জোর তল্লাশি শুরু করেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ। জানা যায়, ওই অভিযুক্তরা দীর্ঘদিন ধরেই এলাকার ওই মহিলাকে কটুক্তি করে আসছিলেন। যার প্রতিবাদ করাতেই তাদের উপর আক্রমন করেন প্রতিবেশী গৌরাঙ্গ বলে অভিযোগ। ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন মা ও ছেলে।

শীর্ষেন্দু মহন্ত নামে আক্রান্ত ওই যুবক বলেন, মা’কে কটুক্তির প্রতিবাদ করতে গিয়েই তার উপর ছুরি দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে।

স্বপ্না সরকার মহন্ত নামে আক্রান্ত ওই মহিলা বলেন, বেশকিছুদিন ধরেই এমন আচরণ করে আসছিল তারা। যার প্রতিবাদ করতেই তাদের উপর চড়াও হয়েছে ওই অভিযুক্তরা। তিনি চান তাদের কঠোর শাস্তি।

স্থানীয় কাউন্সিলর পিন্টু দাস বলেন, এইরকম একটি ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় গিয়েছিলেন তিনি। ঘটনার সাথে জড়িতরা যেন উপযুক্ত শাস্তি পায় তার দাবি জানিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here