বাংলাদেশি ফ্ল্যাটের মালিক আশ্রয় দিয়েছিলেন জঙ্গিদের, নিউটাউন এনকাউন্টার নিয়ে অমিত শাহকে চিঠি সৌমিত্র খাঁর

রাজেন রায়, কলকাতা, ১০ জুন: বুধবার দুপুরের নিউটাউনের শাপুরজি আবাসনে শুট আউটে মৃত্যু হয়েছে পাঞ্জাবের মোস্ট ওয়ান্টেড দুই দুষ্কৃতীর। জানা গিয়েছে, ফ্ল্যাটের মালিক বাংলাদেশি আর নিহত গ্যাংস্টারের ঘরে মিলেছে পাকিস্তানে তৈরি বন্দুক। এই নিয়ে বাংলাদেশি ফ্ল্যাটের মালিক আশ্রয় দিয়েছিলেন জঙ্গিদের, অভিযোগ জানিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ।

বিজেপি আগে থেকেই অভিযোগ করে আসছে রাজ্যে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশই জঙ্গিদের ডেরা তৈরি করছে বাংলাকে। নিউটাউনে এনকাউন্টারের ঘটনা সেই বিষয়কেই ইঙ্গিত করছে বলে মনে করছেন বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি।

বুধবার বিকেল থেকে রুদ্ধশ্বাস এনকাউন্টার চলেছে নিউটাউনে। অভিজাত আবাসনে পরিকল্পনা করেই হানা দিয়েছিল এসটিএফ। কেউ বুঝে ওঠার আগেই শুরু হয় গুলি বিনিময়। মুহূর্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলকায়। দীর্ঘ সময় ধরে চলে এনকাউন্টার। অবশেষে নিকেশ করা গিয়েছে দুই মোস্ট ওয়ান্টেড গ্যাংস্টারকে। পাঞ্জাবের দুই কুখ্যাত গ্যাংস্টার জয়পাল ভুল্লার এবং যশপ্রীত সিং। গভীর রাতে সুখবৃষ্টি আবাসন থেকে উদ্ধার হয় দুই গ্যাংস্টারের দেহ।

দুই গ্যাংস্টারের ঘর থেকে যে জিনিস উদ্ধার হয়েছে তাতে চমকে গিয়েছেন তদন্তকারীরা। ভুল্লারের দেহের কাছ থেকে যে বন্দুক উদ্ধার হয়েছে সেটা পাকিস্তানের তৈরি। ঘরে একাধিক প্যাকেজিং উদ্ধার হয়েছে। গ্যাংস্টারের ব্যাগ থেকে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ঠিকানা পাওয়া গিয়েছে। তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। এই দুই ঘটনা বাংলাদেশি মালিকের বাড়িতে গ্যাংস্টারের ডেরা দুই ঘটনাকে সহজ ভাবে নিতে রাজি নয় বিজেপি। এই ঘটনার এনআইএ তদন্তের দাবি জানিয়েছে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here