রাজ্য সড়কে দাঁড়িয়ে খাবার চাইছে দাঁতাল, না পেলে উল্টে দিচ্ছে গাড়ি

রাজ্য সড়কে দাঁড়িয়ে খাবার চাইছে দাঁতাল, না পেলে উল্টে দিচ্ছে গাড়ি

আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ৬ সেপ্টেম্বর: রাজ্য সড়কে গাড়ি থামিয়ে যেভাবে তোলা আদায় করা হয় সেভাবেই খাবারের সন্ধান করছে দাঁতাল খাবার না পেলে ভেঙে উল্টে দিচ্ছে গাড়ি। পরপর কয়েকটি গাড়িতে দাপিয়ে হামলা চালালেও বনদপ্তরের কোনও কর্মীর দেখা নেই। শুক্রবার  সকাল থেকে ঝাড়গ্রামে ৫নং রাজ্য সড়কের ওপর এভাবেই  দাদাগিরি চালিয়েছে কয়েকটি  দাঁতাল ।

হাতির দাদাগিরিতে ঝাড়গ্রাম—লোধাশুলি রাজ্য সড়কে যাতায়াতকারী গাড়ির পাশাপাশি নাজেহাল ঝাড়গ্রামের জারুলিয়া, বিকাশ ভারতী, শিরশি সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার রাতে ওই সমস্ত  গ্রামে হামলা চালানোর পর আজ সকালে গড়শালবনির কাছে ৫নং রাজ্য সড়কের ওপর গাড়ি দাঁড় করিয়ে খাবার খুঁজতে থাকে একটি দাঁতাল। খাবার না পেয়ে বিরক্ত হয়ে উল্টে দেয় ওষুধ ভর্তি একটি ভ্যানকে। বিরক্ত হাতিটি সেখান থেকে সরে গেলে গাড়ির চালক ও খালাসিকে গ্রামবাসীরা উদ্ধার করেন। এর পরে একটি ধান বোঝাই লরি দাঁড় করিয়ে ধান খায়। হাতির হানা থেকে বাঁচতে ছুটে পালাতে গিয়ে মুখ থুবড়ে পড়ে গুরুতর আহত হন জিতুশোল সিআরপিএফ ক্যাম্পের জওয়ান দীপক পাল।

হাতির তান্ডবে নাজেহাল ওই এলাকার বেশিরভাগ গ্রামের বাসিন্দাই। আজ, জারুলিয়া গ্রামে একাধিক হাতি ঢুকে এক গ্রামবাসীর দোকান ঘর ভেঙ্গে খাবার লুঠ করে। ওই গ্রামে কয়েক বিঘা জমির ধানও নষ্ট করে দেয় হাতির দল । গ্রামবাসীরা হাতিগুলিকে তাড়াতে গেলে হাতির আক্রমণে আহত হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতলে ভর্তি হয়েছেন দুলাল মাহাতো নামে এক গ্রামবাসী।

ওই এলাকায়  রেসিডেন্সিয়াল কয়েকটি হাতির  সমস্যা  দীর্ঘদিন ধরে ছিলই, তার সঙ্গে  যোগ  হয়েছে  দলমার  কয়েকটি হাতির পাল। হাতিগুলিকে এলাকা থেকে সরানো হচ্ছে না বলে  অভিযোগ গ্রামবাসীদের। হাতির তান্ডব এবং গ্রামবাসীদের আতঙ্ক দিন দিন বেড়েই চলেছে। ঝাড়গ্রাম বন বিভাগ বিষয়টি সেভাবে মানতে না চাইলেও এই মুহূর্তে ঝাড়গ্রাম গ্রমীণ এলাকার প্রায় সবজায়গাতেই হাতির দল ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে বলে দাবি এলাকাবাসীর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve − 8 =

amaderbharat.com

Welcome To Amaderbharat.com, Get Latest Updated News. Please click I accept.