পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে বনধে মিশ্র সাড়া 

আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ৮ জানুয়ারি: শ্রমিক সংগঠন গুলির ডাকা বুধবারের ধর্মঘটে জঙ্গলমহলের দুই জেলা পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে মিশ্র সাড়া পাওয়া গেছে। ধর্মঘটের সমর্থনে সকাল থেকে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষিপ্ত বিক্ষোভ অবরোধের ছবি দেখা যায়। ধর্মঘটউপেক্ষা করায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল পাঁশকুড়া সড়কে ভাঙ্গচুর করা হয় যাত্রীবাহী বাস। মেদিনীপুর শহরে প্রধান ডাকঘর সহ বেশ কিছু অফিসে কাজ কর্ম স্বাভাবিক হয়নি। ধর্মঘটের সমর্থনে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের খড়্গপুর টাটানগর শাখার  সর্দিহা স্টেশনে কিছুক্ষণের জন্য ট্রেন আটকে দেয় সিপিএম সর্মথকরা।খড়গপুর শহরের প্রেমবাজারে দোকানপাট বাজার বন্ধ রাখতে জোর করায় হরেকৃষ্ণ দেবনাথ, অমিতাভ দাস, বিপ্লব ভট্ট সহ ৫ জন বামপন্থী নেতাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে  থানায় নিয়ে যায়।

শালবনীতে সিমেন্ট কারখানায় কাজ করার জন্য শ্রমিকদের অনুরোধ করলেও শ্রমিকরা পুলিশের অনুরোধ ফিরিয়ে দেন। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার নারায়ণগড়, ডেবরা ও সবং এলাকায় এবং ঝাড়গ্ৰাম জেলার বেলপাহাড়ি, শিলদা, বিনপুর, লালগড়, নয়াগ্রাম, সাঁকরাইল, গোপীবল্লভপুর এলাকায় এদিন শান্তিপূর্ণ হরতাল পালিত হয়েছে। কোথাও কোনো গন্ডগোলের খবর নেই বলে দুই জেলার পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে। রাস্তাঘাটে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল না, অন্য দিনের তুলনায় নগণ্য ছিল। ধর্মঘটের ফলে সাধারণ মানুষ সমস্যায় পড়েন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here