প্রথম বর্ষের ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ কলেজের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে

আমাদের ভারত, পূর্ব মেদিনীপুর, ৯ ডিসেম্বর: সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে এক প্রথম বর্ষের ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ উঠল মহিষাদল রাজ কলেজের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে। পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলের মহিষাদল রাজ কলেজের কলেজ পরিচালন সমিতির সভাপতি ও ব্লক তৃণমূলের সভাপতি তিলক চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ করে ইটামগরা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান রামকৃষ্ণ দাস ৫ই ডিসেম্বর সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। সেই পোস্টটি রাজ কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র মলয় প্রধান সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে ৭ই ডিসেম্বর। অভিযোগ, এরপর শনিবার মলয় কলেজে গেলে কলেজের ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক শুভজিৎ কুইলা ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি উত্তম কুমার সমাজি কলেজের ছাত্র পরিষদের ঘরে মলয়কে মারধর করে। কলেজ থেকে কোনো রকমে বেরিয়ে মলয় মহিষাদল গ্রামীন হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে শনিবার সন্ধ্যায় মলয় মহিষাদল থানায় শুভজিৎ কুইলা ও উত্তম সমাজির নামে অভিযোগ জানায়।

এ ব্যাপারে উত্তম সমাজি বলেন, তিলক চক্রবর্তী রাজনৈতিক ভাবে কোনো পদে থাকতে পারে, কিন্তু কলেজের মধ্যে নোংরামি ও রাজনৈতিক রেষারেষি চাইনা। আর মারধরের যে অভিযোগ করা হয়েছে সেটি সম্পূর্ন মিথ্যে। এ ব্যাপারে তিলক চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কিছু বলতে চাননি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here