বাগদায় দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে জোর করে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ বাগদায়, পলাতক অভিযুক্ত

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগনা, ২৭ ডিসেম্বর:
দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে জোর করে ধরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল শালিমার কোম্পানির এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানার সিন্দ্রানী আকুন্দতলা এলাকায়। অভিযোগ, মুরগির ফার্ম নিয়ে ওই কোম্পানির যুবকদের সঙ্গে টাকা নিয়ে ঝামেলা। তার জেরেই ভোর রাতে বাড়ি ঢুকে মা বাবার সামনে থেকে মেয়েকে তুলে নিয়ে গিয়ে এক যুবক ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

ছাত্রীর মায়ের অভিযোগ, কয়েকদিন ধরে শালিমার নামে কোম্পানির যুবকদের সঙ্গে মুরগির ফার্মের টাকা নিয়ে ঝামেলা চলছিল। কথা অনুযায়ী মুরগি বেশি নিয়ে যাচ্ছিল তাঁরা। টাকা চাইলে দিতে অস্বীকার করে ওই কোম্পানির যুবকরা। মঙ্গলবার অশান্তি চরমে উঠে। শুক্রবার ভোরে ফের ফার্ম থেকে মুরগি নিতে গেলে ওই ছাত্রীর বাবা মা বাধা দিতে গেলে তাদেরকে মারধর করে মেয়েকে তুলে নিয়ে যায় পাশের একটি আম বাগানে। সেখানেই তাকে ধর্ষণ করে বলে ছাত্রীর মায়ের অভিযোগ। সকালেই নির্যাতিতা দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী বাগদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে বাগদা থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here