ফিরে এসে সিনেমা করুন, আমরাও দেখবো, জামিন মঞ্জুরের পর সায়নী ঘোষকে কটাক্ষ সুকান্ত মজুমদারের

আমাদের ভারত, ২২ নভেম্বর: ত্রিপুরা আদালতে জামিন মঞ্জুর হবার পরেই কটাক্ষের সুরে তৃণমূলের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষকে কলকাতায় ফিরে এসে অভিনয় চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

তৃণমূল নেত্রী তথা টলি অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ ত্রিপুরার আদালতে জামিন পাওয়ার বিষয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, “খুব ভালো খবর। আমরা স্বাগত জানাচ্ছি আদালতের রায়কে। আইন আইনের পথে চলবে। তিনি কোনও অপরাধ না করে থাকলে সাজা পাবেন না।” যদিও এরপরই সুকান্ত মজুমদার কটাক্ষের সুরে সায়নীর উদ্দ্যেশ্যে বলেন, “ফিরে আসুন সিনেমা করুন আমরাও দেখবো”।

রবিবার আগরতলায় তৃণমূল নেত্রী সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করে সেই রাজ্যের পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করা হয়। পুলিশ তাকে সোমবার আদালতে তোলে। পুলিশ দু’দিনের জন্য সায়নী ঘোষকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে আবেদন করে। তবে শুনানিতে তাঁকে জামিন দেন বিচারক।

রবিবার পুলিশ জানিয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সভার পাশ দিয়ে অত্যন্ত জোরে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন সায়নী। সেই সময় এক পথচারীকে ধাক্কা দেয় তৃণমূল নেত্রীর গাড়ি। তবে এটা ছাড়াও সায়নীর বিরুদ্ধে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্যের অভিযোগ করেছিল পুলিশ।

রবিবার সায়নীকে দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয়। সোমবার আদালত চত্বর থেকে বেরিয়ে সায়নী বলেন, “আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ যে ভিত্তিহীন ছিল, তা প্রমাণিত। আমাদের লড়াই চলবে এভাবে আমাদের দমানো যাবে না।”

এদিকে ত্রিপুরার ঘটনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি যাওয়ার আগে বলেন, “কোথায় গেল মানবাধিকার কমিশন? যেভাবে ত্রিপুরায় গণতন্ত্রের হত্যা হয়েছে সারাদেশ দেখছে। বিজেপি শাসিত রাজ্যের এমন শাসন ব্যবস্থায় মানুষ হাঁপিয়ে উঠেছে। আমাদের বেলায় তো কত মানবাধিকার কমিশন, ৩৫৫ কথা বলা হতো। এখন সব কোথায়?”

এর পাল্টা দিতে গিয়ে সুকান্ত মজুমদার বলেন, “ভারতবর্ষ গণতান্ত্রিক দেশ, ওনারা চাইলেই মানবাধিকার কমিশনে যেতে পারেন। আইন পথে আমরাও এগিয়েছি। এখানেও আমাদের কর্মীদের উপর অনেক মিথ্যা মামলা, অত্যাচার নেমে এসেছে। এমন পঞ্চায়েত প্রধান আছেন তিনি দু’বছর ঘরে ফিরতে পারেননি। আমরা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি। ওনাও যেতে পারেন।”

অন্যদিকে ত্রিপুরার ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি জমা দিয়েছে তৃণমূল সাংসদরা। পাল্টা স্মারকলিপি জমা দিয়েছে বিজেপিও। সোমবার সকালে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, “মাথায় দুটো ইট পড়েছে তাই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে চলে যাচ্ছে। আরও দুটো পড়লে তো রাষ্ট্রপুঞ্জে ছুটবে।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here