ঘাটালের অন্যতম প্রাচীন নিদর্শন সূর্য ঘড়ি আজও সময় নির্দেশ করে চলেছে

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ১৮ মে: ঘাটাল মহকুমার অন্যতম প্রাচীন নিদর্শন হল একটি সূর্যঘড়ি। জেলা তথ্য সংস্কৃতি দপ্তর থেকে জানা গেছে, সম্ভবত ১৮১৭ সালে ওই ঘড়িটি নির্মাণ করা হয়েছিল। ঘড়িটি দিনের বেলায় সূর্যের আলোর মাধ্যমে সময় নির্দেশ করে। দাসপুর-২ ব্লকের খানজাপুর হাইস্কুল সংলগ্ন পাল পুকুরের পাড়ে দেখতে পাওয়া যায় ঘড়িটি। ওই গ্রামেরই প্রশান্তকুমার পাল পেশায় ছিলেন ওড়িশা ও বিহারের স্বনামধন্য ইঞ্জিনিয়ার। তাঁরই অসাধারণ কীর্তি পাথর নির্মিত ওই সূর্য ঘড়ি। ভোর ৫টা৪০ থেকে সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিট পর্যন্ত ওই ঘড়িটি সূর্যের আলো দ্বারা সময় নির্দেশ করে। পাথরের তৈরি ঘড়িতে লাগানো উঁচু ফলকের ছায়া সময় নির্দেশ করে।

শোনা যায় একসময় ঘড়িটিকে চুরি করে নিয়ে যাবার পথে দুষ্কৃতীরা অজানা কারণে পার্শ্ববর্তী মাঠে ফেলে রেখে গিয়েছিল। পরবর্তী সময় স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এটিকে খোলা জায়গায় না রেখে লোহার ব্যারিকেড করে রাখা হয়েছে। তবে ওই ঐতিহাসিক ও অনন্য শিল্প কীর্তিটি দেখার জন্য মূল রাস্তা থেকে পুকুরের পাড় পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তাটি অত্যন্ত সংকীর্ণ এবং অনুপযুক্ত বলে জানাগেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here