বিবিসির তথ্যচিত্রে কেন্দ্রের নিষেধাজ্ঞায় এখুনি স্থগিতাদেশ নয়, হলফনামায় সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চাইল সুপ্রিম কোর্ট

আমাদের ভারত, ৩ ফেব্রুয়ারি: বিবিসির তথ্যচিত্রের ওপর কেন্দ্রীয় সরকারের জারি করা নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশ দিলো না সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারকে তিন সপ্তাহ সময় দিয়েছে। তিন সপ্তাহের মধ্যে কেন্দ্র সরকারকে নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তির কপি এবং হলফনামা দিয়ে সেটি জারি করার ব্যাখ্যা আদালতে দিতে তা পেশ করতে হবে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে এপ্রিলে।

ইন্ডিয়া দ্যা মোদী কোয়চশ্চেন তথ্যচিত্র ভারতে দেখানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে কেন্দ্রের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন সাংবাদিক এন রাম, তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র, আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ। তারা নির্দেশ প্রত্যাহারে কেন্দ্রকে নির্দেশ দিতে বলে সুপ্রিম কোর্টের কাছে আর্জি জানিয়েছিলেন। কিন্তু আদালত স্থগিতাদেশ দেয়নি ফলে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলো।

গুজরাটের দাঙ্গার ঘটনা ও সেই সময় সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকা নিয়ে তথ্যচিত্র ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে উঠেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েও মামলা হয়েছে। বিবিসির তৈরি বিতর্কিত তথ্যচিত্র ভারতে পাকাপাকিভাবে নিষিদ্ধ করার আর্জি জানিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছে হিন্দু সেনা। ওই সংগঠনের সভাপতি বিষ্ণু গুপ্ত এবং বীরেন্দ্র কুমার সিংয়ের তরফে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের হয়েছে। বিষ্ণু গুপ্তের বক্তব্য, বিবিসি দেশের ঐক্য ও অখন্ডতার জন্য বিপদজনক। বিবিসিকে অবিলম্বে নিষিদ্ধ করতে হবে।‌

কিছুদিন আগে কেন্দ্রের তরফে বিবিসির তথ্য চিত্রের লিঙ্ক সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তুলে নেওয়ার জন্য নির্দেশ জারি করা হয়েছিল। পাশাপাশি আইটি রুলস ২০২১-এ জরুরি ক্ষমতা প্রয়োগ করে ৫০ টির মতো টুইট তুলে নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here