ঝকঝকে তরুণ অভিনেতা তাড়াতাড়ি চলে গেলেন, বড় ক্ষতি, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর

আমাদের ভারত, ১৪ জুন: তরুণ প্রজন্মের হার্টথ্রব ছিলেন তিনি। দেশের গন্ডি পেরিয়ে তার খ্যাতি ছড়িয়ে ছিল। অথচ মাত্র ৩৪ বছরে চলে গেলেন তিনি। এভাবে চলে যাওয়া কি তাকে মানায়? রবিবার সকালে বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ উদ্ধার হয়। সুশান্তের মৃত্যুর খবর অনেকটা সময় কেটে গেলেও অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না যে তিনি আর নেই। শুধু অভিনয় জগতে নয় ক্রীড়া রাজনীতি সবক্ষেত্রে থেকেই শোকবার্তা আসছেএই প্রানোজ্জল অভিনেতার রহস্যমৃত্যুতে। শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও।

রবিবার দুপুরে মোদী টুইট করে লিখেছেন, “ঝকঝকে তরুন অভিনেতা এতো তাড়াতাড়ি চলে গেলেন। বড় পর্দা কিংবা ছোট পর্দা সর্বত্রই তার প্রতিভা মানুষকে আকৃষ্ট করেছে।বহু মানুষ তার অভিনয় মুগ্ধ হয়ে দেখেছে। আমি তার মৃত্যুতে শোকস্ত।ব্ধ তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। ওম শান্তি।”

জানা গেছে, রবিবার সকালে সুশান্তের বাড়ির পরিচারিকাই পুলিশকে খবর দেয় পুলিশকে। সুশান্ত সিং রাজপুত এর অ্যাপার্টমেন্টে ছুটে আসে পুলিশ। তারাই উদ্বার করে তার ঝুলন্ত দেহ। কেন এত কম বয়সে চলে গেলেন সুশান্ত? প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী, দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন সুশান্ত। সামাজিক মাধ্যম থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলেন। শেষের দিকে শুধুমাত্র ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করতে দেখা গিয়েছিল তাকে।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে সম্ভবত কিছুটা হলেও অনুমান করা যাবে এই প্রতিভাবান অভিনেতার মৃত্যুর কারণ। জানা গেছে ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কখনোই কারো সঙ্গে কথা বলতে পছন্দ করতেন না তিনি। আর সেই জন্যেই ব্যক্তিগত কোন সম্পর্কের কারণেই আত্মহত্যা কিনা তা জানা যায়নি। কিছুদিন আগেই সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তন ম্যানেজারের আত্মহত্যার খবর পাওয়া গিয়েছিল। মুম্বাইয়ের এক বহুতল থেকে ঝাঁপ দিয়েছিল সে। সেই খবরে বেশ খানিকটা ভেঙে পড়েছিলেন সুশান্ত বলে জানা যাচ্ছে। তবে তার মৃত্যুর সঙ্গে এই কারণটিও কোনো ভাবে যুক্ত কিনা তা স্পষ্ট নয়। এখনো পর্যন্ত সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকে কোনো সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি।

ছিছোড়ে ছবিতে শেষবার অভিনয় করতে দেখা গেছে সুশান্তকে। এছাড়াও কেদারনাথ, এম এস ধোনি, দ্য আনটোল্ড স্টোরি,ডিটেকটিভ ব্যোমকেশ বক্সি, পিকে, কাই পো চে’ সহ একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন সুশান্ত। টিভির পর্দায় পবিত্র রিস্তা ধারাবাহিক দিয়েই কেরিয়ার সাফল্যের দিকে এগিয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here