অবাক করা প্রায় এক ফুট লম্বা শান্তিভোগই এবারের আকর্ষণ বাড়িয়েছে বোল্লা মেলার

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ১৫ নভেম্বর: শান্তিভোগ নামে বড় আকারের মিষ্টিই বোল্লা মেলায় নজর কাড়ে দর্শনার্থী ও ভক্তদের। যা অন্যান্য মেলায় প্রায় চোখে পড়ে না বললেই চলে। ছানা, ময়দা ও এলাচ দিয়ে তৈরি বড় আকারের এই রসগোল্লা চলতি ভাষায় অনেকের কাছে এডাল্ট মিষ্টি নামেও পরিচিত থাকলেও দোকানদাররা অবশ্য শান্তিভোগ নামেই বিক্রি করেন ক্রেতাদের কাছে। বড় মাপের লম্বাটে ওই মিষ্টিগুলি আকৃতি অনুসারেই দাম নির্ধারণ করেন দোকানদাররা। এক ফুট উচ্চতার ওই মিষ্টির ১০০ টাকা দর হলেও ৭০ ও ৫০ টাকা দরেও কিছুটা ছোট আকারের শান্তিভোগ মিলছে এবারের বোল্লা মেলায়। সমগ্র মেলা জুড়ে ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৫০টিরও বেশি মিষ্টির দোকান বসেছে বোল্লা চত্বরে। যেগুলির প্রতিটি দোকানেই মজুত রয়েছে মেলার অন্যতম আকর্ষণীয় এই শান্তি ভোগ।

উত্তরবঙ্গের অন্যতম বৃহৎ ও অত্যন্ত জনপ্রিয় এই বোল্লা পুজোয় সমাগম ঘটে দেশ বিদেশের প্রচুর ভক্তদের। পুজোর দিন বাংলাদেশ, অসম থেকেও বহু দর্শনার্থী ভিড় করেন মায়ের মন্দিরে। এখানে দেবীর কাছে মানত করেন অসংখ্য ভক্তবৃন্দ। যেখানে প্রসাদ হিসাবে নিবেদন করা ভোগগুলির মধ্যে অন্যতম বড় মাপের এই শান্তি ভোগ। কেউ বা বাড়ির লোকেদের কাছে মেলার সেরা উপহার হিসাবেও কিনে নিয়ে যান বড় মাপের এই রসগোল্লা বা শান্তিভোগ। রসগোল্লা তৈরির যাবতীয় সামগ্রী এই মিষ্টিতে থাকলেও আকর্ষণ বাড়াতে লম্বাটে আকৃতির করা হয়।

শান্তি ভোগ বিক্রেতা সুরজিৎ পাল বলেন, তিনি প্রতি বছরই এই মেলায় মিষ্টির দোকান দেন। এই মেলায় বিশেষ আকর্ষণ বলতেই শান্তি ভোগ। অন্যান্য মেলায় এই মিষ্টি তেমন ভাবে দেখা না গেলেও, এখানে প্রচুর ক্রেতা শান্তি ভোগ ক্রয় কর থাকেন। রসগোল্লার আদলে বড় মাপের লম্বাটে এই মিষ্টি সকলের কাছে অত্যন্ত আকর্ষণীয়, লোভনীয়ও বটে। দূর দূরান্ত থেকে আসা দর্শনার্থীদের কাছে অন্যতম আকর্ষণীয় জিনিস মেলার এই মিষ্টি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here