ছাদ থেকে প্রেমিককে ধাক্কা দিয়ে ফেলে মারার অভিযোগ প্রেমিকা ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদীয়া, ২২ জুন: প্রেমিকার বাড়ির ছাদ থেকে প্রেমিককে ধাক্কা দিয়ে ফেলে মারার অভিযোগ উঠল প্রেমিকা ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি হরিণঘাটা থানার বড়জাগুলির।

জানাগেছে, দক্ষিণ ভৌমিক পাড়ার ভবতোষ দেবনাথের সাথে প্রিয়া মজুমদারের দীর্ঘদিনের প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল। ভবতোষ তুরস্কে কাজ করতো। দু’বছর আগে তুরস্কে গিয়েছিল, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে বাড়িতে আসে। এরপর মার্চে আবার যাওয়ার কথা থাকলেও করোনা সংক্রমণের জেরে আর যেতে পারেনি বিদেশে। বিদেশে থাকাকালীন প্রিয়াকে মাসে মাসে টাকা পাঠাত ভবতোষ।এর মধ্যেই সেই টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে অশান্তি তৈরি হয়েছিল। পরিবার সূত্রে খবর, গতকাল বিকেলে ফোন করে প্রিয়া ভাবতোষকে ডাকে। অভিযোগ, ভবতোষ প্রিয়ার বাড়ি গেলে ছাদে উঠে দু’জনে কথা বলার সময় হঠাৎ ভবতোষ ছাদ থেকে পড়ে যায়। এরপরে তাকে প্রথমে হরিণঘাটা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র সেখান থেকে কল্যাণীর জেএনএম হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে।

যদিও প্রেমিকের পরিবারের ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে প্রেমিকার পরিবার। তাদের দাবি, ভবতোষ নিজেই ছাদ থেকে পড়ে যায়। যদিও ঘটনার তদন্তে নেমেছে হরিণঘাটা থানা পুলিশ। ইতিমধ্যেই প্রেমিক ও তার বাবাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here