পুড়িয়ে দেওয়া হল বিজেপির কার্যালয়, উত্তেজনা গোঘাটে                                             

গোপাল রায়, আরামবাগ, ১৬ মে: পুড়িয়ে দেওয়া হল বিজেপির কার্যালয়। শুক্রবার ভোরে গোঘাটের ভাদুড় অঞ্চলে বিরামপুর এলাকার ঘটনা। অভিযোগের আঙুল উঠেছে তৃণমূলের দিকে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। গোঘাটথানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা গেছে, গোঘাট বিরামপুর এলাকায় বিজেপির একটি কার্যালয় রয়েছে। বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে,আজ ভোরে দেখা যায় কার্যালয়ের সামনে টাঙানো দলীয় পতাকা, ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তারই সাথে কার্যালয় আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। ভোরে বিজেপির কর্মীরা দেখতে পান কার্যালয়টি আগুনে পুড়ছে। ঘটনাস্থলে যায় গোঘাট থানার পুলিশ। আগুনে বিজেপির পার্টি অফিসের দরকারি কাগজপত্র ও জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

তাদের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও তা অস্বীকার করেছে তৃণমূল। এই ঘটনায় বিজেপির পক্ষ থেকে গোঘাট থানায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিজেপির আরামবাগ জেলার সাংগঠনিক সভাপতি বিমান ঘোষ বলেন, বিরামপুর এলাকায় তৃণমূলের দুষ্কৃতী আমাদের পার্টি অফিসে আগুন লাগিয়ে দেয়। বিজেপি দলীয় পতাকা ছিঁড়ে ফেলে দেয় পুড়িয়ে দেয়। এ বিষয়ে আমরা গোঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। পুলিশ যেন তার নিরপেক্ষতা বজায় রেখে কাজ করে।

গোঘাটের বিধায়ক মানস মজুমদার বিজেপির সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সাধারণ মানুষকে কিভাবে রিলিফ দেওয়া যায় তা নিয়েই ব্যস্ত তৃণমূল। বিজেপি এমনিতেই মানুষের কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছে তাই ঘরে বসে বসে রাজনীতি করছে। এই নোংরা রাজনীতি তৃণমূল কংগ্রেস করে না। কার্যালয়ে আগুন লাগানো তৃণমূলের কাজ নয়। সবটাই নাটক বিজেপির। এই সময় কিছুটা তো দৃষ্টি আকর্ষণ করতে হবে, তাই নিজেদের কার্যালয়ে আগুন লাগিয়ে মিডিয়ার কাছে দৃষ্টি আকর্ষণ করা। এর বাইরে কিছু নয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here