২৪ জুনের মধ্যে সমস্ত স্কুলকে নবম শ্রেণির বার্ষিক নম্বর জমা দেওয়ার নির্দেশ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৮ জুন: মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক মিলিয়ে এবছর মোট ২১ লক্ষ পড়ুয়ার পরীক্ষায় বসার কথা ছিল। করোনার কারণে চলতি বছরে দুই পরীক্ষাই বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। তবে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মাধ্যমিক পরীক্ষার মূল্যায়ন হবে ২০১৯ সালে নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার নম্বর ও দশম শ্রেণির ইন্টারনাল পরীক্ষাগুলোর নম্বরের ভিত্তিতেই। আর তার জন্য সঠিক সময়ে সমস্ত স্কুলের পক্ষ থেকে নবম শ্রেণির নম্বর জমা পড়া আবশ্যক। কারণ এই সবকটি পরীক্ষা মিলেই মাধ্যমিকের ফল তৈরি করা হবে। সেই কারণেই স্কুলগুলিকে ২৪ জুনের মধ্যেই নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার নম্বর জমা করার নির্দেশ দিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

রাজ্যজুড়ে পর্ষদের অধীনস্থ সব স্কুলগুলিকেই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ২৪ জুনের মধ্যেই সমস্ত স্কুলকে নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার নম্বর জমা করতে হবে।ছাত্রছাত্রীরা যে নম্বর পেয়েছে তাই যেন রেজিস্টারে থাকে, নম্বর নিয়ে কোনওরকম কারচুপি হলে এবং তা জানা গেলে সেই স্কুলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সেটাও নিশ্চিত করে বলে দেওয়া হয়েছে।

বোর্ডের তরফে একটি ওয়েবসাইট বানানো হয়েছে, সেই ওয়েবসাইটে লগইন করে মার্কশিট জমা করতে হবে। ২০২১ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালের ক্লাস নাইনের মার্কশিট এবং ক্লাস টেনের ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্টে প্রাপ্ত নম্বর নিয়েই তৈরি হবে মাধ্যমিকের মার্কশিট। দুই ক্ষেত্রেই ৫০-৫০ শতাংশ গুরুত্ব দেওয়া হবে। তবে কেউ পরে পরীক্ষা দিতে চাইলে সেক্ষেত্রে পরীক্ষা নেওয়ার ওপর তার প্রাপ্ত নাম্বার চূড়ান্ত করা হবে। এই পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করে জুলাই মাসের মধ্যেই এই দুই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here