কালিয়াচকে জলের ট্যাঙ্ক থেকে চারজনের দেহ উদ্ধার, বাড়িতে রহস্যজনক সুরঙ্গের খোঁজ

আমাদের ভারত, মালদা, ১৯ জুন: একই পরিবারের চারজনের দেহ উদ্ধার। জলের ট্যাঙ্ক থেকে দেহগুলি উদ্ধার করা হয়েছে। মালদার কালিয়াচক থানার পুরাতন ১৬ মাইল এলাকার ঘটনা। খবর পেয়ে তদন্তে কালিয়াচক থানার পুলিশ। প্রাথমিক অনুমান খুন করে দেহগুলি জলের ট্যাঙ্কে ফেলা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত দেহ উদ্ধার হয়নি। ম্যাজিস্ট্রেটের আসছেন। ইতিমধ্যেই বাড়ির ভেতর থেকে উদ্ধার হয়েছে সুরঙ্গ। বাড়ির মালিক মোহাম্মদ আসিফকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাড়ির ভেতরে একটি সুড়ঙ্গের খোঁজ।

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বাড়ির মালিক মোহাম্মদ আসিফ পরিবারের ৪ সদস্যকে নিয়ে থাকতেন। সে নাকি একটি বিশেষ ধরনের অ্যাপ তৈরি করছিল। প্রতিবেশীর জানান, সেই জন্য তার বাবার কাছ থেকে সম্পত্তি লিখে নেয়। এরপর থেকে পরিবারের কোনও সদস্যের সঙ্গে এলাকাবাসীর যোগাযোগ ছিল না। এমনকি বাড়িতে প্রবেশের ক্ষেত্রেও ছিল বাধা নিষেধ। আরও জানা গেছে, তারা দুই ভাই। গত ফেব্রুয়ারি মাসের পর থেকে দুই পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কারোর যোগাযোগ ছিল না। মোহাম্মদ আসিফ তার দাদাকেও প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল। প্রাণ ভয়ে তিনি বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে কলকাতায় যান।

সম্প্রতি বাড়ি ফিরে এসেই থানায় অভিযোগ জানান। এরপরই মোহাম্মদ আসিফকে আটক করে নিয়ে যায় কালিয়াচক থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই মোঃ আসিফকে গত দুই মাস আগেই পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে গিয়েছিল এমনকি তার ল্যাপটপ এবং বিভিন্ন ডিভাইস নিয়ে যায়। ১৫ দিন আগে এই ল্যাপটপ ফেরত দিয়ে যায়। এরপরই শুক্রবার এলাকার বাসিন্দাদের সন্দেহ হয়। আটক মোহাম্মদ আসিফ পুলিশকে জানিয়েছে সে তার পরিবারের ৪ সদস্যকে খুন করে বাড়ির মধ্যে মাটিতে পুঁতে রেখেছে। তবে কি কারণে তাদের খুন করল সেটা এখনো জানা যায়নি।

ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। এমনকি তার বাড়ির ভেতর থেকে একটি সুরঙ্গ উদ্ধার হয়েছে। কেন এই সুরঙ্গ তা ভাবাচ্ছে পুলিশকে। ইতিমধ্যেই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন। তিনি বলেন ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি ঘটনাস্থলে এসেছি আমি পুলিশ প্রশাসনকে বলবো সঠিক তদন্ত করতে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here