জেঠিমার আলমারি থেকে শিশু পুত্রের হাত পা বাঁধা মৃতদেহ উদ্ধার

আশিস মণ্ডল, বোলপুর, ৮ আগস্ট: আলমারিতে বন্দি থেকে দম বন্ধ হয়ে মৃত্যু হল বছর দুয়েকের এক শিশুপুত্রের। খুনের অভিযোগ উঠেছে শিশুর জেঠিমার বিরুদ্ধে। অভিযোগ আলমারিতে প্রায় ৬ ঘন্টা আটকে রাখার ফলে মৃত্যু হয়েছে শিশুটির।
ঘটনাটি ঘটেছে বোলপুর থানার কাশিপুর গ্রামে৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বোলপুর থানার কাশিপুর গ্রামের মুরশেদ খানের বছর দুয়েকের শিশুপুত্র আকিব খানকে শুক্রবার বিকেল থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। প্রায় ৬ ঘন্টা পরে মুরশেদ খানের দাদা লালচাঁদ খানের বাড়ির আলমারি থেকে শিশুপুত্রটিকে উদ্ধার করা হয়। দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকায় শিশুপুত্রটির মৃত্যু হয়েছে, না তাকে মেরে আলমারিতে ভরে রাখা হয়েছিল তার তদন্ত করছে পুলিশ। অভিযোগ, শিশুপুত্রের জেঠিমা তাজমিরা বিবি ওই শিশুপুত্রকে আলিমারিতে ভরে রাখে। পারিবারিক অশান্তির জেরে এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে অনুমান পুলিশের।

ঘটনার দিন দুপুরে তাজমিরা বিবির ছেলের সঙ্গে খেলা করছিল আকিব খান। খেলতে খেলতে দুই শিশুর মধ্যে মারামারি হয়। এরপরেই তাজমিরা বিবি আকিব খানকে মাথায় আঘাত করে। সেই আঘাতেই অজ্ঞান হয়ে যায় শিশুপুত্রটি। বেগতিক বুঝে তাজমিরা বিবি আকিবকে হাত-পা বেঁধে আলমারিতে ভরে বন্ধ করে রাখে বলে অভিযোগ। এরপরেই আকিবের পরিবার ছেলের খোঁজে হন্যে হয়ে ঘুরতে থাকে। বাড়ির পাশে থাকা একটি পুকুরে স্থানীয় ডুবুরি নামিয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরিবারের সন্দেহ হওয়ায় তাজমিরা বিবি বাড়ির ভিতর খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। তাতেই ভেঙে পড়ে জেঠিমা। পাড়া প্রতিবেশীর চাপে পরে আলমারি থেকে মৃতদেহ বের করে সে।

সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই গ্রামে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বোলপুর থানার পুলিশ। উত্তেজনা বাড়তে থাকায় বোলপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিকের নেতৃত্বে বোলপুর সার্কেল ইনস্পেক্টর, নানুর, ইলামবাজার, পাড়ুই থানার ওসি সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তাজমিরা ও তার স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here