অপহরণের ছক কষে বাবার কাছে টাকা আদায় করতে গিয়ে ধৃত ছেলে

আশিস মণ্ডল, সিউড়ি, ২৯ জুন: এই গল্পের সঙ্গে সিনেমার মিল রয়েছে যথেষ্ট। থাকবে তো বটেই। কারণ নায়কের নাম যে আমির খান। সেই ছেলেই অপহরণের গল্প ফেঁদে বাবার কাছ থেকে টাকা আদায়ের ছক কষেছিল। কিন্তু ছক বানচাল করে পুলিশ নায়ক সহ তার দুই বন্ধুকে গ্রেফতার করে। সোমবার তাদের সিউড়ি আদালতে তোলা হলে প্রত্যেককে তিনদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

আমির খান। বাড়ি সিউড়ির গরুইঝোড়া গ্রামে। পেশায় স্কুল শিক্ষক। অভিযোগ, মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করে শনিবার বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যায় আমির খান। তারপর বাড়িতে ফোন আসে আমিরকে অপহরণ করা হয়েছে। দিতে হবে পাঁচ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ। আমিরের বাবা পুলিশের দ্বারস্থ হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ। যে নম্বর থেকে ফোন এসেছিল সে নম্বরেই ফের ফোন করে টাকা দেওয়ার কথা জানানো হয়। এবং সেইমতো টাকা পৌঁছে দেওয়ার  নাটক করা হয়। ঠিক হয় সিউড়ির তসরকাটা জঙ্গলে টাকা পৌঁছে দিতে হবে। সেই মতো পুলিশ আগে থেকেই ফাঁদ পেতে রাখে। সেই ফাঁদে পড়ে যায় আমির। গ্রেপ্তার করা হয় তার দুই বন্ধুকেও। সোমবার ধৃতদের সিউড়ি আদালতে তোলা হয়।

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, ছেলেটির নাম আমির খান এবং তাঁর দুই সঙ্গীর নাম সুমন রায় এবং পল্টু মাহারা৷ বিচারক তাদের তিনদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। সরকারি আইনজীবী  চন্দ্রনাথ গোস্বামী বলেন,” পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছে যে ছেলেটি নেশা করত তাই ওই টাকা আদায় করতে চেয়েছিল। তাই এই অপহরণের ছক কষেছিল। ওই ফোনটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে আর কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা তদন্ত করছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ছেলেটি শনিবার দিন দুপুরে টাকা পয়সা নিয়ে মায়ের সাথে ঝামেলা করে বেরিয়ে গিয়েছিল। রাতে বন্ধুদের সাথে নেশা করে এই ফন্দি করেছিল। বাড়িতে মুক্তি পণ চেয়ে ফোন করার পর পুলিশে জানায় পরিবার।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here