উত্তর ২৪ পরগনা জেলা জুড়ে জ্বলে উঠল প্রদীপ মোমবাতি

সুশান্ত ঘোষ, উত্তর ২৪ পরগনা, ৫ এপ্রিল: ঠিক রাত ৯টা। বনগাঁ এলাকাতে একসঙ্গে জ্বলে উঠল প্রদীপ, মোমবাতি ও মোবাইলের ফ্লাসলাইট। কোথাও উলুরধ্বনি, কোথাও শংখ ধ্বনি। শুধু বনগাঁতে নয় সারা দেশের সঙ্গে গোটা উত্তর ২৪ পরগনার জেলা জুড়ে ঘরের সামনে বা বাড়ির ছাদে জ্বলে উঠল প্রদীপ, মোমবাতি ও মোবাইলের ফ্লাস লাইট। সাড়া দিল মানুষ দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে।

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে বলেছিলেন আপনারা আমাকে ৯মিনিট সময় দিন। ৫ এপ্রিল রাত ৯ টা থেকে ৯ মিনিট ঘরের লাইট বন্ধ করে ঘরের দুয়ারের সামনে প্রদীপ, মোমবাতি বা মোবাইলের লাইট জ্বালান। এই নিয়ে বিভিন্ন মহলে অনেক বিতর্ক হয়েছিল। কিন্তু সব উপেক্ষার অবসন ঘটিয়ে সাধারন মানুষ সামিল হল তাতে। জ্বলে উঠল একে একে প্রদীপ, মোমবাতি ও মোবাইলের ফ্লাস লাইট।

আজ বনগাঁর অধিকাংশ বাড়ির লাইট ছিল বন্ধ। কেউ বাড়ির ছাদে কেউ বাড়ির সামনে প্রদীপ, মোমবাতি জ্বালিয়ে জোর হাত করে ঠাকুরের নাম করেন। এমনই দেখা গেল জেলার বিজেপি সহ সভাপতি দেবদাস মণ্ডলে বাড়ির ছাদে। তিনি ও তাঁর পরিবার জাতীয় পতাকার মত করে মোমবাতি সাজিয়ে ছিলেন।

অন্য দিকে যুবক স্কুল পড়ুয়া ও শিক্ষকদের বাড়ির সামনে মোবাইলের ফ্লাসলাইট জ্বালিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। আবার মা মাসিরাও ছাদের মোমবাতি প্রদীপ জালিয়ে শঙখ ও উলুধ্বনি দিতে। এথেকেই বোঝা যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এক পথেই চলতে চায় ভারতবাসী। কোনও বিতর্ক নয়, কোনও রাজনীতি নয়। মানুষের সুরক্ষার জন্য লকডাউন পালন করে করোনার মোকাবিলায় আমাদের জিত হবে বলছেন আমজনতা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here