বকেয়া টাকার দাবিতে কাজে যোগ না দিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন পুরুলিয়া পুরসভার সাফাই কর্মীরা

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৯ জুলাই: বকেয়া বেতনের দাবিতে কাজে যোগ দিলেন না পুরুলিয়া পুরসভার সাফাই কর্মীরা। বুধবার, সকাল থেকেই তাঁরা গাড়িখানা এলাকায় অবস্থিত পুরসভার জঞ্জাল ও সাফাই বিভাগের দফতরে জমায়েত হয়ে বিক্ষোভ দেখান। সাফাই কর্মীদের দাবি, করানো আবহে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে, অথচ নায্য টাকা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন তাঁরা। উপযুক্ত পোশাক ও বিমার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করতে হবে পুরসভাকে বলে তাঁরা দাবি করেন। পুরসভার বিরুদ্ধে তাঁদের অভিযোগ, অন্যান্য সব বিভাগের টাকা দেওয়া হলেও বাদ হয়ে যান সাফাই বিভাগের কর্মীরা।

পুরুলিয়া পুরসভায় এক হাজারেরও বেশি জঞ্জাল সাফাই বিভাগের কর্মী রয়েছেন। বেশিরভাগই অস্থায়ী কর্মী। পুরসভা এলাকা জঞ্জালমুক্ত করতে তাঁদের যথেষ্ট ভূমিকা থাকে। এ কথা স্বীকার করে নেন পুরুলিয়া পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের অন্যতম সদস্য বৈদ্যনাথ মন্ডল। তবে তিনি বলেন,’মনসা পুজোর আগে সমস্ত বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেওয়া হবে। লকডাউনের কারণে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকায় বেতন দেওয়া সম্ভব হয়নি।’

এদিন পুরুলিয়া পুরো এলাকায় টানা লকডাউন জারি রয়েছে। এই অবস্থায় এইভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে জমায়েত করা সাফাই কর্মীদের কতটা সমীচীন? এর যুক্তি দিয়ে বিক্ষোভরত সাফাই কর্মীরা বলেন পেটে খিদের জ্বালা থাকলে এমনই পরিস্থিতি হবে। দীর্ঘদিন ধরে বকেয়া টাকা না পাওয়ায় কোথাও আর ধার-দেনা পাওয়া যাচ্ছে না। এই বিষয়টি কি প্রশাসন গুরুত্ব দিয়েছে? বকেয়া টাকা না পেলে এই ভাবেই কর্মবিরতি করবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন বিক্ষোভরত সাফাই বিভাগের কর্মীরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here