করোনা থাবা বসিয়েছে দু’মুঠো অন্নে, কুকুরের মুখের খাবার খাচ্ছে কেড়ে

আমাদের ভারত, হাওড়া, ৪ এপ্রিল: ওরা লকডাউন কি জানে না। ওরা শুধু জানে পেটের জ্বালা। সারাদিন এখানে ওখানে ঘুরে বেড়িয়ে যা জোটে তাই দিয়েই জঠর জ্বালা মেটায় ওরা। কিন্তু করোনার জেরে ওদের পেটের জ্বালা মেটাতে আজ কেড়ে খেতে হচ্ছে কুকুরের মুখের খাবার।কিংবা ডাষ্টবিন থেকে সংগ্রহ করতে হচ্ছে খাবার। হাওড়ার জনবহুল এলাকা বাসস্ট্যান্ড কিংবা স্টেশন অথবা হাসপাতাল চত্বর–সব জায়গাতেই খাবার খুঁজে চলেছে ওরা। আত্মীয়পরিজনকে নয়, খাবার শুধু খাবার খুঁজছে।কারন সব জায়গাই ফাঁকা। লোকজন না থাকায় কেউ এগিয়ে এসে খাওয়ায়নি।

বন্ধ দোকানপাট এবং খাবারের হোটেল। অথচ এই দুঃসময়ে ওদের জন্যও ব্যবস্থা করেছে সরকার। ব্যব্দথা করেছেবআশ্রয় ও অন্নের। কিন্তু কে ওদের সেখানে নিয়ে যাবে? তাই খাবার পেতে ওদের হানা চলছে ডাস্টবিনে ডাস্টবিনে, কিংবা নর্দমার ধারে। কারন ওদের ভবঘুরে বলা হয় । এই চিত্র দেখে মনে পড়ে বিখ্যাত গায়ক ভূপেন হাজারিকার গলায় গাওয়া, মানুষ মানুষের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ? তাই আসুন এই দুঃসময় আমাদের থেকে এক মুঠো করে অন্য নিয়ে পাড়ায় বা রাস্তায় যেখানে আমরা দেখতে পাব তাদের মুখে তুলে দিই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here